মাওয়া ঘাটে বাসজট : পদ্মায় ফেরিজট

অতিরিক্ত ভাড়া আদায় : যাত্রী দুর্ভোগ চরমে
বৃহস্পতিবার মাওয়া ঘাটে যানজটের কারণে পদ্মায় দেখা দেয় ফেরিজট। লোকাল বাসের আধিক্যের কারণে গতকালও মাওয়া ঘাটে ছিল তীব্র যানজট। ঈদে কর্মস্থল ঢাকায় ফেরা মানুষের চাপে মাওয়া ঘাটে দেখা দেয় বাস সংকট। বাস না পেয়ে ঘন্টার পর ঘন্টা দাঁড়িয়ে থেকে চরম বিড়ম্বনার শিকার হন ঢাকামুখী যাত্রীরা। ঘাট এলাকায় লোকার বাসের জটের কারণে ফেরি থেকে বাসগুলো আনলোড করতে না পারায় ঘন্টার পর ঘন্টা ফেরিগুলো পরিবহনসহ নদীতে ভেসে ছিল। বাস সল্পতার সুযোগে বাস ও পরিবহনগুলো যাত্রীদের নিকট থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করেছে বলে অভিযোগ করেছে যাত্রীসাধারণ।

বিআইডব্লিউটিসি মাওয়া অফিস সূত্রে জানা যায়, মাওয়া ঘাটে লোকাল বাসের জটের কারণে কাওড়াকান্দি থেকে পরিবহন নিয়ে ছেড়ে আসা ফেরিগুলো মাওয়া ঘাটে আনলোট করতে ব্যাপক ঝামেলায় পরে। দু/একটি পরিবহন ফেরি থেকে নামার পর যানজটে আটকা পড়ে সামনে এগুতে না পাড়ায় ফেরির র‌্যামের মধ্যে যানজট লেগে যায়। ফলে বাকি গাড়ীগুলো আর নামতে না পাড়ায় গাড়ীসহ ফেরিগুলোকে ঘন্টার পর ঘন্টা নদীতে ভেসে থাকতে হয়। আর আনলোড করে যথাসময়ে ফেরিগুলো কাওড়াকান্দি ঘাটে পৌঁছাতে না পাড়ায় ওখানে দেখা দেয় বিশাল যানজট।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই সিবোট, ট্রলার ও লঞ্চে করে পদ্মা পাড়ি দিয়ে হাজার হাজার ঢাকামুখী যাত্রী মাওয়া এসে পৌঁছে। এখানে আসার পরই মাওয়া ঘাট এলাকার বাস স্ট্যান্ডের পরিবহনগুলো মুহুর্তেই ভরে গিয়ে মুহুর্তেই বাস স্ট্যান্ড খালি হয়ে পড়ে। ঢাকা থেকে ফিরতি বাস আসতে আসতে ঘাটে যাত্রীর সংখ্যা বেড়ে যায়। বাসের জন্য অপেক্ষায় থেকে এক সময় দীর্ঘ লাইনে ঘন্টার পর ঘন্টা দাঁড়িয়ে থেকে বাসে উঠতে হয় যাত্রী সাধারণকে। বাসের থেকে যাত্রী সংখ্যা বেশি হওয়ায় বাস কর্তৃপক্ষ যাত্রীদের কাছ থেকে দ্বিগুন কোন কোন ক্ষেত্রে তিনগুনও ভাড়া আদায় করেছে। আজ শুক্রবার ও কাল শনিবার ঈদের পরের শেষ ছুটি হওয়ায় এখানে যাত্রীর সংখ্যা আরো বেড়ে যাবে বলে ধারণা করছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। এক্ষেতে লোকাল বাসগুলোকে চৌরাস্তায় সড়িয়ে না নিলে আজ ও আগামীকাল এখানে ভয়াবহ যানজট ও ফেরি জটের আশঙ্কা করছে মাওয়া ফেরি সার্ভিস কর্তপক্ষ।

এদিকে দূর পাল্লার বাসের সাথে লোকাল বাসগুলো মাওয়া চৌরাস্তা থেকে ঘাট এলাকায় পৌঁছতে পৌঁছতে বেলা ১১ টা থেকে ঘাটে লোকাল বাসের জট লেগে যায়। যত্রতত্র ও এলোমেলোভাবে বাস থামিয়ে যাত্রী উঠানোর ফলে ঘাটে দেখা দেয় বাসের জট। ফলে এর প্রভাব পড়ে ফেরির উপর। লোকাল বাসের কারণে ফেরি থেকে পরিবহনগুলো ঘাটে নামতে না পাড়ায় ঘন্টার পর ঘন্টা ফেরিগুলো ভেসে ছিল নদীতে । এ অবস্থা দূর করে যাত্রীদের আরামদায়কভাবে রাজধানী ঢাকায় পৌঁছতে হলে অবশ্যই লোকাল বাস স্ট্যান্ডকে চৌরাস্তায় সড়িয়ে নিতে হবে বলে মনে করছেন অভিজ্ঞরা

মোহাম্মদ সেলিম, মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি। ০১৯১১১৪২৬৭০
১৬.০৯.১০

[ad#co-1]