মুন্সিগঞ্জের মেধাবী শিক্ষার্থী আকিফের জীবন বিপন্ন

ছেলেকে বাঁচাতে লাখো মানুষের প্রত্যেকের কাছে ১ টাকা করে সাহায্য চেয়ে হাত বাড়িয়েছে মা
শহরের শ্রীপল¬ী এলাকার “অ্যাপ¬াস্টিক অ্যানিমিয়ায়” আক্রান্ত মেধাবী শিক্ষার্থীকে বাঁচাতে দেশের ১৫ কোটি মানুষের মধ্যে অন্তত ৭০ লাখ মানুষের কাছে ১ টাকা করে সাহায্য চেয়ে হাত পেতেছেন শিক্ষার্থীর অসহায় মা জাহানারা বেগম। গতকাল রবিবার দুপুরে মুন্সিগঞ্জ শহরের সাংবাদিকদের কাছে কান্না জড়িত কন্ঠে এভাবেই দেশের মানুষের কাছে মাত্র এক টাকা করে সাহায্য চাওয়ার কথা জানিয়েছেন তিনি। জটিল ওই রোগে আক্রান্ত সরকারি হরগঙ্গা কলেজের মেধাবী শিক্ষার্থী মাশরুফ হোসেন আকিফ এখন মৃত্যুর প্রহর গুনছে। ঢাকার নিকটবর্তী জেলা মুন্সিগঞ্জের এই মেধাবী শিক্ষার্থী বাঁচতে চায়।

একাদশ শ্রেণীর ছাত্র আকিফ দু’ দিন অন্তর অন্তর ৪ ব্যাগ পরিমান রক্ত নিয়ে বেঁচে আছে। ডাক্তার মঞ্জুর মোর্শেদের তত্ত্বাবধানে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালের ১৪ তলার ১৪‘শ ১৮ নম্বর বেডে বর্তমানে চিকিৎসাধীন আছে মেধাবী আকিফ। শরীরে রক্ত দিয়ে তাকে বাঁচিয়ে রাখতে হচ্ছে। তার রক্তের গ্র“প এ প্লাস। স্কয়ার হাসপাতালের চিকিৎসকরা জানিয়েছেন জটিল এ রোগের চিকিৎসা এদেশে সম্ভব নয়। বিদেশে এ রোগের চিকিৎসা করতে পারলে আকিফ জীবন ফিরে পেতে পারেন। বিদেশে এ রোগের চিকিৎসা করতে খরচ হবে কমপক্ষে ৭০ লাখ টাকা। আকিফের পরিবারের পক্ষে ছেলের চিকিৎসায় এতো টাকা খরচ করা সম্ভব নয়। তাই একমাত্র সন্তান আকিফকে বাঁচাতে কান্না ভেঁজা কন্ঠে তার মা জাহানারা বেগম সাহায্যের হাত পেতেছেন এদেশের লাখ লাখ মানুষের পানে। তিনি বলেন- “এ দেশের ১৫ কোটি মানুষের মধ্যে মাত্র ৭০ লাখ মানুষ যদি মাত্র ১ টাকা করে দেন, তবে আমার আকিফকে বাঁচানো যেতো”- এই কথা বলে মা জাহানারা বেগম এদেশের লাখো মানুষের মুখের দিকে তাকিয়ে আছেন। মানুষের দোয়া ও অর্থ সহযোগিতায় আকিফ বেঁচে থাকবে। টাকা পাঠানোর ঠিকানা- ন্যাশনাল ব্যাংক, পাগলা শাখা, নারায়ণগঞ্জ। হিসাব নং- সিডি ৩৩০১০৬৪৩। মোবাইল-০১৭১৬৫১৯৬০৮, ০১৮১৯৫০১০৯১

মোহাম্মদ সেলিম, মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি।০১৯১১১৪২৬৭০
২৯ আগস্ট ২০১০

[ad#co-1]