মোয়াজ্জেম ও রফিকের ১২ মামলার কার্যক্রম ৬ মাস স্থগিত

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া ও ভাইস চেয়ারম্যান শাহ মোয়াজ্জেম হোসেনের বিরুদ্ধে দায়ের করা পৃথক ১২টি মামলার কার্যক্রম ৬ মাসের জন্য স্থগিত করেছে হাইকোর্ট। একইসঙ্গে এ সকল মামলার কার্যক্রম কেন বেআইনি এবং অবৈধ ঘোষণা করা হবে না চার সপ্তাহের মধ্যে তার কারণ দর্শাতে সংশ্লিষ্টদের প্রতি রুল জারি করেছে আদালত। বিচারপতি মঈনুল ইসলাম চৌধুরী এবং বিচারপতি মো. আব্দুস সামাদের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের অবকাশকালীন বেঞ্চ রোববার এ আদেশ দেন। আবেদনকারীদের পক্ষে এডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন এবং রাষ্ট্র পক্ষে ডেপুটি এটর্নি জেনারেল রাজিক আল জলিল শুনানিতে অংশ নেন।

গত ২৫ জুলাই রাজধানীর মুক্তাঙ্গনে বিএনপি আয়োজিত এক সমাবেশে ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া ও শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার হুমকি দিয়ে বক্তব্য রাখেন। যা বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশ ও প্রচার করা হয়।

পরে এ ঘটনায় তাদের বিরুদ্ধে ঢাকা (২টি), চট্টগ্রাম, খুলনা, মানিকগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, ভোলা, বগুড়া, পঞ্চগড়, নড়াইল, যশোর, কুষ্টিয়া ও সিরাজগঞ্জ আদালতে ১৩টি মামলা দায়ের করা হয়।

এদিকে একই ঘটনায় একাধিক মামলা দায়েরের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট দায়ের করলে আদালত ১২টি মামলার কার্যক্রমের উপর এ আদেশ দেয়। তবে তাদের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার হুমকির অভিযোগে ঢাকা মহানগর আদালতে গোলাম আলীর দায়ের করা ১টি মামলার কার্যক্রম চলবে। এর আগে এসব মামলায় তারা উচ্চ আদালত থেকে অন্তর্বর্তীকালীন জামিন লাভ করেন।

[ad#co-1]