আনন্দঘণ্টা নিয়ে আবার মাহী

জনপ্রিয় ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘আনন্দঘণ্টা’ নিয়ে আবারও আসছেন মাহী বি চৌধুরী। আগের মতোই পরিকল্পনা, গ্রন্থনা ও পরিচালনার পাশাপাশি তাকে দেখা যাবে অনুষ্ঠান উপস্থাপনায়। তার সঙ্গে উপস্থাপনায় থাকছেন স্ত্রী আশফাক হক লোপা। বিটিভির পরিবর্তে অনুষ্ঠানটি এবার প্রচার হবে এটিএন বাংলায়।

নব্বইয়ের দশকের শেষভাগে বিটিভিতে ‘আনন্দঘণ্টা’র প্রচার শুরু হয়। টানা প্রায় তিন বছর প্রচারের পর রাজনৈতিক ব্যস্ততার কারণে অনুষ্ঠানটি চালিয়ে যেতে পারেননি মাহী। অনুষ্ঠানটি সে সময় বেশ জনপ্রিয় হয়েছিল। পরে অনুষ্ঠানটি আবার নির্মাণের পরিকল্পনা নিলেও নানা কারণে তা বাস্তবায়ন হয়নি। এবার ঈদের পর আবার অনুষ্ঠানটির কাজ শুরু করতে যাচ্ছেন তিনি। এ বিষয়ে বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কমকে মাহী বি চৌধুরী বলেন, আগের থিম নিয়েই পরিবারের সবার জন্য অনুষ্ঠানটি তৈরি করছি। আগের জনপ্রিয় পর্ব হিংটিংছট ও ইচ্ছাপূরণের পাশাপাশি এবার আরো কিছু নতুন আয়োজন যোগ হচ্ছে। পুরো অনুষ্ঠানটিকে সময়ের উপযোগী করে ঢেলে সাজাচ্ছি। অনুষ্ঠানটির নাম পরিবর্তনের কথাও ভাবছি।

বর্তমানে মাহী বি চৌধুরীর গ্রন্থনা ও পরিচালনায় চ্যানেল আইতে গত জুলাই প্রচার হচ্ছে রিয়েলিটি শো ‘ফ্যান কাব টুর্নামেন্ট’। দেশের ১৬ জন সেলিব্রিটির ফ্যানদের নিয়ে এখন চলছে এই রিয়েলিটি শোর অডিশন রাউন্ড। আইয়ুব বাচ্চু, মৌসুমী, শমী কায়সার, নোবেল, ফেরদৌস, মোস্তফা সরয়ার ফারুকী, শাফিন আহমেদ, কুসুম সিকদার, তিন্নি, ইমন, নওশীন, বিন্দু, দীপা খন্দকার, তিশা, অপূর্ব ও মোশাররফ করিম এই রিয়েলিটি শোতে নিজ নিজ ফ্যান কাবের হয়ে অংশ নিচ্ছেন।

‘ফ্যান কাব টুর্নামেন্ট’ সম্পর্কে মাহী বলেন, এটি বাংলাদেশের সবচেয়ে ব্যয়বহুল ও বিগবাজেটের রিয়েলিটি শো। আইকিউ ও পারফরমেন্সের ভিত্তিতে এ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। টুর্নামেন্টের চ্যাম্পিয়ন দল পাচ্ছে ৫০ লাখ টাকা, রানার আপ পাবে ৪০ লাখ টাকা। ঈদের পর রিয়েলিটি শোর মূল পর্ব শুরু হবে। এখন প্রতি সোম ও মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৫টায় প্রচার হলেও ঈদের পর থেকে এটি রাত সাড়ে এগারোটায় দেখা যাবে। মাহী বি চৌধুরী জানান, আরো একটি রিয়েলিটি শো নিয়ে শিগগিরই তাকে দেখা যাবে বৈশাখী টেলিভিশনে। ‘সøাম বিউটি’ নামের এই শোতে তৃণমূল পর্যায়ের মেয়েরা অংশগ্রহণ করবে। তাদের মধ্য থেকেই মেধা ও সৌন্দর্যের ভিত্তিতে অনুষ্ঠিত হবে প্রতিযোগিতা।

মাহী বি চৌধুরীর কাছে প্রশ্ন ছিল, রাজনীতি থেকে ধীরে ধীরে দূরে সরে এসে মিডিয়ার কাজ নিয়ে এই ব্যস্ততার কারণ কী ? তিনি বলেন, রাজনীতি থেকে মোটেও আমি দূরে সরিনি। আগের মতোই সক্রিয় আছি এবং আগামীতেও থাকব বলে আশা রাখি। পাশাপাশি মিডিয়ার কাজও চালিয়ে যাব। রাজনীতিতে যুক্ত হবার আগেই মিডিয়ার কাজে আমি জড়িত হই, এটাকে আমি পেশা হিসেবে নিয়েছি। মাঝে নতুন দল গোছানোর কাজ নিয়ে ব্যস্ত থাকায় মিডিয়া থেকে খানিকটা দূরে সরে এসেছিলাম। এখন রাজনৈতিক কাজের পাশাপাশি মিডিয়াতেও নিয়মিত সময় দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। তিনি আরো বলেন, শুধু রাজনীতি দিয়ে একটা দেশে পরিবর্তন আনা সম্ভব নয়। সাংস্কৃতিক পরিবর্তনের মধ্য দিয়েও দেশকে অনেক অগ্রসর করা যায়।

বাংলাদেশ স্থানীয় সময় ২১৫২, আগস্ট ২৪, ২০১০
বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর

[ad#co-1]

2 Responses

Write a Comment»
  1. amar kub balo lage apnar pogram……….

  2. I think u r perfect in politics. TV show is different think to server the people.
    Bangladesh wants Mr Mahi B Ch……….. Such kind people.