মুন্সীগঞ্জে ইভটিজিং রোধে বিভিন্ন পদক্ষেপ

বখাটের উৎপাতে স্কুলছাত্রী হাসনা রহমান সিনথিয়ার আত্মহত্যার পর মুন্সীগঞ্জে ইভটিজিং রোধে ব্যবস্থা নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। গত বুধবার জেলার শ্রীনগর উপজেলার বাড়ৈখালী উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্রী সিনথিয়া আত্মহত্যা করে। এ ঘটনায় বখাটে ও বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির এক সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

ইভটিজিং রোধে ওই বিদ্যালয়ে একটি কমিটি রয়েছে।

মঙ্গলবার বিকালে জেলার আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সভায় সিনথিয়ার আত্মহত্যার বিষয়ে আলোচনা হয়।

আর যাতে এ ধরনের ঘটনা না ঘটে সেজন্য প্রতি উপজেলায় মনিটরিং কমিটি, প্রতিটি বিদ্যালয়ে অভিযোগ বাক্স এবং একজন করে শিক্ষককে দায়িত্ব দিয়ে ছাত্রীদের সমস্যা সমাধানের সিদ্ধান্ত হয়।

পাশাপাশি জেলা প্রশাসককের কার্যালয়ে একটি ফোন লাইন চালুর সিদ্ধান্ত হয়েছে। এই ফোন ২৪ ঘন্টা সচল থাকবে এবং দ্রুততম সময়ের মধ্যে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ছাত্রীদের জড়তা কাটাতে এবং আত্মহত্যার প্রবণতা বন্ধে ‘আত্মহত্যাই শেষ কথা নয়’ শীর্ষক বির্তক প্রতিযোগিতা আয়োজনের ব্যাপারেও আলোচনা হয়।

এছাড়া জেলার মাদক নিয়ন্ত্রণ, মাওয়া ফেরিঘাটের যাত্রী হয়রানি, ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কে সড়ক দুর্ঘটনা, হিমাগারে আলু সংরক্ষণ, শহরে প্রকাশ্যে প্রবাসী ব্যবসায়ীকে হত্যা এবং লৌহজংয়ে খুলনার সাংবাদিকের লাশ উদ্ধার নিয়ে সভায় আলোচনা হয়।

সভায় গ্যাস ও বিদ্যুৎ বিভ্রাট, নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রীর দাম উঠানামা ও টিসিবির ডিলারদের কর্মকাণ্ড নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করা হয়।

এতে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক মো. আজিজুল আলম।

বক্তব্য রাখেন- পুলিশ সুপারিনটেনডেন্ট মো. শফিকুল ইসলাম, হিমাগার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি জসিম উদ্দিন, পৌর মেয়র মুজিবুর রহমান, আওয়ামী লীগ নেতা তোফাজ্জল হোসেন ও জামাল হোসেন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মেহেরুন্নেসা নাজমা প্রমুখ।

[ad#co-1]