পদ্মা সেতু নির্মাণ কাজ জানুয়ারিতে শুরু হবে: যোগাযোগমন্ত্রী

পদ্মা সেতুর নির্মাণ কাজ আগামী জানুয়ারি শুরু হবে বলে জানিয়েছেন যোগাযোগমন্ত্রী সৈয়দ আবুল হোসেন। সোমবার রাজধানীর বনানীতে সেতু ভবনে এক চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে এ কথা জানান তিনি। সেতু প্রকল্প এলাকার বাসিন্দাদের পুনর্বাসনে ভৌত অবকাঠামো নির্মাণ কাজের জন্য এ চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানের আয়োজন করে পদ্মা বহুমূখী সেতু প্রকল্প।

সৈয়দ আবুল হোসেন বলেন, “২০১০ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে মূল সেতু নির্মাণের জন্য সকল দরপত্র আহ্বান এবং চুক্তি সম্পন্ন করা হবে। ২০১১ সালের জানুয়ারিতে নির্মাণ কাজ শুরু হয়ে তা ২০১৩ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে সম্পন্ন হবে।”

চুক্তি স্বাক্ষর প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “প্রকল্প এলাকার তিনটি স্থানে যারা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তাদের পুনর্বাসনের জন্য চারটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান রাস্তা, স্কুল, কলেজ, স্বাস্থ্য কেন্দ্র, বাজারসহ বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ করবে।”

প্রায় সাড়ে ৮৩ কোটি টাকা ব্যয়ে পুনর্বাসনের কাজ হচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, “মুন্সিগঞ্জ জেলার লৌহজং, শরিয়তপুর জেলার জাজিরা এবং মাদারীপুর জেলার শিবচরে এ উন্নয়ন কাজ আগামী ছয় মাসের মধ্যে শেষ হবে।”

ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান এমআরএম-এআরকে এর পক্ষে ব্যবস্থাপনা পরিচালক আতাউর রহমান খান এবং এমইসি-পিএনএল এর পক্ষে এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবুল কালাম এবং পদ্মা বহুমূখী সেতু প্রকল্পের পরিচালক মো. রফিকুল ইসলাম দুটি চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন।

বাকি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান খান এণ্ড সন্সের সঙ্গে আগামী কয়েকদিনের মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষর করা হবে বলে জানান তিনি।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন সেতু বিভাগের সচিব মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া এবং যুগ্ম-সচিব মো. ছবির আহমেদ।

[ad#co-1]