পদ্মাপাড়ের মেয়েটি

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের গল্প নিয়ে রুবাইয়াত হোসেন ‘মেহেরজান’ নামে একটি চলচ্চিত্র পরিচালনা করেছেন। মেহেরজান চরিত্রের জন্য ১৮-১৯ বছরের একটি মেয়ে অনেক খোঁজাখুঁজির পর পাওয়া গেল। তার নাম শায়েনা। এর আগে তিনি বিজ্ঞাপনচিত্রের মডেল হয়েছিলেন। শায়েনা বলেন, ‘কখনও ভাবিনি চলচ্চিত্রে অভিনয় করব। তা-ও আবার সে চলচ্চিত্রে থাকবে পাকিস্তানি নায়ক ওমর রহিম, জয়া বচ্চন, কলকাতার ভিক্টর ব্যানার্জি। বিজ্ঞাপনচিত্রে কাজ করার সুবাদে পরিচালক রাজীব আহমেদের সঙ্গে পরিচয় হয়েছিল। তার মাধ্যমেই পরিচালক রুবাইয়াত আপুর সঙ্গে পরিচয় হয়। তিনি আমাকে দেখেই তার চলচ্চিত্রের নায়িকা হিসেবে নির্বাচন করেন। ছবিটি আগামী ডিসেম্বরে মুক্তি পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।’ এরই মধ্যে আরিফুল ইসলাম অনন্তর পরিচালনায় একটি চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন শায়েনা।

শায়েনার জন্ম সৌদি আরবে। বাবার ব্যবসার সুবাদে আরও অনেক দেশেই যাওয়ার সুযোগ হয়েছে তার। মেয়েটির শৈশব কেটেছে ঢাকার লালমাটিয়ায়। দাদা ও নানাবাড়ি মুন্সীগঞ্জে। শায়েনা এখন লালমাটিয়া মহিলা বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের ব্যবস্থাপনা বিষয়ের অনার্স প্রথম বর্ষের ছাত্রী। অনার্স শেষ করে লন্ডনে উচ্চতর শিক্ষার জন্য যাওয়ার পরিকল্পনা আছে তার। গত মাসে কক্সবাজারে আফজাল হোসেনের পরিচালনায় একটি সাবানের বিজ্ঞাপনচিত্রে মডেল হয়েছেন তিনি। নাটকে শায়েনার শুরুটা হয়েছিল ২০০৫ সালে। বদরুল আনাম সৌদের রচনা ও পরিচালনায় ‘কটবিহাইন্ড’ নাটকের মাধ্যমে। নাটকটি সে বছর রোজার ঈদে প্রচার হয়। বিজ্ঞাপনচিত্রে অভিনয়ের পাশাপাশি শায়েনা আর তার মামা মিলে তৈরি করেছেন জেনেসিস ভিউ নামের একটি মডেল এজেন্সিও।

২০০৪ সালে কিসলুর পরিচালনায় সানসিল্কের এক বিজ্ঞাপনচিত্রের মাধ্যমে ১৪ বছর বয়সে বিনোদন ভুবনে কাজ শুরু করেন। এরপর তারিক আনাম খান, অমিতাভ রেজার পরিচালনায় বিভিন্ন বিজ্ঞাপনচিত্রে অভিনয় করেন। একে একে এইচআরসি বাল্ব, তিব্বত কদুর তেল, আপন জুয়েলার্স, আরকু গুঁড়া মশলা প্রাণ চাটনিসহ আরও অনেক বিজ্ঞাপনচিত্র।

[ad#co-1]