মুন্সীগঞ্জে স্বামী অপহরণ নাটকের অবসান!

অবশেষে নিজ স্বামীকে অপহরণ ও ৫ লাখ টাকার মুক্তিপণ দাবিতে স্ত্রীর সাজানো নাটকের অবসান হয়েছে গত বুধবার দুপুরে। অপহরণের ২৪ ঘণ্টা পর বুধবার দুপুরে মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার বংশনগর গ্রাম থেকে র‌্যাব ও গোয়েন্দা পুলিশ রাজধানীর ধানম-িতে অপহৃত স্বামীকে উদ্ধার করেছে। এ সময় আটক করা হয়েছে স্ত্রী ও শ্যালককে। আগের দিন মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে স্ত্রী নাদিয়া বেগম (৩০), শ্যালক মোক্তার হোসেন ও মো. কাশেম কৌশলে ধানম-ি থেকে কুয়েত ফেরত স্বামী মো. বাবুলকে (৪২) অপহরণ করে। পরে স্ত্রী ও শ্যালক সেল ফোনে বাবুলের পরিবারের কাছে ৫ লাখ টাকার মুক্তিপণ দাবি করে।

এদিকে গত বুধবার দুপুর ১টার দিকে র‌্যাবের সহযোগিতা নিয়ে ধানম-ির গোয়েন্দা পুলিশের একটি টিম অপহৃত বাবুলের স্ত্রী নাদিয়ার বাপের বাড়ি মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার বংশনগর গ্রামে অভিযান চালায়। গোয়েন্দা পুলিশ জানায়, ধানম-ির মো. বাবুল সম্প্রতি কুয়েত থেকে দেশে ফেরেন। দীর্ঘ সময় ধরে প্রবাস জীবনে থাকা অবস্থায় সেখানকার ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি থেকে বিপুল পরিমাণের টাকা পান। এতে দাম্পত্য কলহের জের ধরে স্ত্রী নাদিয়া বেগম ও তার দুভাই মিলে মঙ্গলবার স্বামী বাবুলকে কৌশলে লৌহজংয়ে নিজের বাপের বাড়িতে এনে আটকে রাখে। এতে মঙ্গলবার রাতে বাবুলের পরিবারের পক্ষে ধানম-ি থানায় অপহরণের অভিযোগপত্র দায়ের করা হয়।

এতে বুধবার ধানম-ির গোয়েন্দা পুলিশ ও র‌্যাবের একটি বিশেষ টিম জেলার লৌহজংয়ে অভিযান চালায়। ওই অভিযানে অপহরণের ২৪ ঘণ্টা পর স্বামী বাবুলকে উদ্ধার করা হয়। এ সময় স্ত্রী নাদিয়া বেগম, শ্যালক মোক্তার হোসেন ও মো. কাশেমকে আটক করে ধানম-ি থানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তাদের সেখানে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

[ad#co-1]