রাশিদুল-স্মৃতি গ্রেপ্তার

জুরাইনে মা ও দুই সন্তানের মৃত্যুর ঘটনায় আত্মহত্যা প্ররোচণার অভিযোগে করা মামলায় আরো দুই জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন নিহত ফারজানা কবির রিতার স্বামী রাশিদুল কবির ও তার দ্বিতীয় স্ত্রী রাজিয়া সুলতানা স্মৃতি। শনিবার সকাল ৯টায় গুলশানে পিজ্জা হাটের সামনে থেকে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের জনসংযোগ শাখার অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার ওয়ালিদ হোসেন।

তিনি আরো জানান, গ্রেপ্তার দুই জনকে গোয়েন্দা হেফাজতে রাখা হয়েছে।

গত ১১ জুন জুরাইনের কদমতলী থানার আলমবাগ এলাকার বাড়ি থেকে ফারজানা কবির রিতা (৩৫), তার ছেলে ইশরাক কবির পবন (১৩) ও মেয়ে রাইসা রাশমিন পায়েল (১১) এর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় রিতার মা মাজেদা বেগম আত্মহত্যা প্ররোচণার অভিযোগ এনে দৈনিক ইত্তেফাকের বিশেষ প্রতিনিধি শফিকুল কবির, তার স্ত্রী নূর বানু, তাদের ছেলে ও রিতার স্বামী রাশিদুল কবির, মেয়ে কবিতা, সুখন ও জামাতা দেলোয়ার হোসেন পাটোয়ারি, রাশিদুলের দ্বিতীয় স্ত্রী রাজিয়া সুলতানা স্মৃতি, গাড়ির চালক আল আমিনের বিরুদ্ধে কদমতলী থানায় মামলা করেন।

মৃত্যুর আগে রিতা তাদের আত্মহত্যা ও পারিবারিক বিরোধের বিভিন্ন অভিযোগের কথা ঘরের দেয়ালে ও কাগজে লিখে রেখে যান।

রাজিয়া সুলতানা স্মৃতির সঙ্গে স্বামী রাশিদুল কবিরের দ্বিতীয় বিয়েতে রিতার কোনো আপত্তি নেই, একথা লেখা একটি কাগজে জোরপূর্বক রাশিদুল স্বাক্ষর নিয়েছে-এই মর্মে একটি অভিযোগও দেয়ালে লেখা রয়েছে বলে পুলিশ কর্মকর্তারা জানান।

[ad#co-1]