মুন্সীগঞ্জে বরাদ্দ কম, এলাকায় ক্ষোভ ॥ কাজ শুরু হয়নি এখনও

এলজিএসপি
লোকাল গবনর্্যান্স সাপোর্ট প্রজেক্টের (এলজিএসপি) আওতায় মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার পঞ্চসার ইউনিয়ন পরিষদ এবার ১ম কিসত্মিতে বরাদ্দ পেয়েছে মাত্র ৪ লাখ ৩৫ হাজার ২২৭ টাকা। বিগত সময়ের চেয়ে টাকার পরিমাণ অর্ধেকেরও কম পাওয়ায় হতাশ এখানকার জনপ্রতিনিধিরা। ক্ষুব্ধ হয়েছেন এলাকাবাসী। জনপ্রিয় এই এলজিএসপি’র অর্থায়নে জনগণের অংশগ্রহনের মাধ্যমে তাই এ বছর এখনও কাজ শুরম্ন করেননি তারা। ৯ প্রকল্প হাতে নেয়া আছে। দ্বিতীয় কিসত্মির টাকা পাওয়ার পরই কাজ শুরম্ন করবেন কিনা তা ইউনিয়নবাসী সিদ্ধানত্ম নেবে। সংরক্ষিত মহিলা (১নং ওয়ার্ড) সদস্য আলী নূর বেগম জানান, গত বছর প্রথম কিসত্মিতে এসেছিল ১০ লাখ ৬৯ হাজার ৫০৬ টাকা। তাদের আশা পরের কিসত্মিতে তাদের জনসংখ্যা অনুপাতেই বরাদ্দ পাবেন। গত বছর এলজিএসপির আওতায় এই ইউনিয়নটি ৩১টি প্রকল্প বাসত্মবায়ন করে। এতে ব্যয় হয় দু’কিসত্মিতে বরাদ্দ হওয়ায় ২১ লাখ ৩৯ হাজার ১২ টাকা। এই প্রকল্পের প্রথম বছর ২০লাখ ৪৮ হাজার ২৯০ টাকা ব্যয়ে ২৪টি প্রকল্প বাসত্মবায়ন করা হয়। প্রায় এক লাখ মানুষের বাসস্থান এই ইউনিয়নে। ১৩ দশমিক ২৫ বর্গ কিলোমিটারের আয়তন এই গুরম্নত্ব ইউনিয়নবাসীর আশা তাদের ইউনিয়ের জনসংখ্যার অনুপাতে বরাদ্দ বৃদ্ধি করা হবে। স্বর্ণপদক প্রাপ্ত পঞ্চসার ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ হাবিবুর রহমান জানান, পাশাপাশি মুন্সীগঞ্জ ও মিরকাদিম পৌরসভার মাঝখানে এই পঞ্চসার ইউনিয়ন। এই দু’পৌরসভা থেকেই জনসংখ্যা ও আয়তনের দিক থেকেই বড় এই পঞ্চসার ইউনিয়ন পরিষদ। সেই অনুযায়ী বরাদ্দের ক্ষেত্রে নানাভাবে অবহেলিত ইউনিয়নটি।

[ad#co-1]