মাওয়ায় ঝড়ে ভেসে যাওয়া ৪ ফেরি ১৪ ঘণ্টা পর উদ্ধার

শনিবার গভীর রাতে মাওয়ায় প্রচ- ঝড়ের তোড়ে যাত্রীসহ একটি লোডিং ফেরিসহ মোট ৪টি ফেরি ভেসে গেছে। নিয়ন্ত্রণ হারানো এই ফেরিগুলো পদ্মার ডুবোচরে আটকা পড়ে। দীর্ঘ ১৪ ঘণ্টার চেষ্টায় পর্যায়ক্রমে রবিবার বিকালে ফেরিগুলো উদ্ধার করা হয়েছে। এ সময় ফেরিতে থাকা যাত্রীসাধারণের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয়। মাওয়ার বিআইডবিস্নউটিসি’র ম্যারিন অফিসার আঃ সোবহান রবিবার বিকালে জানান, শনিবার দিবাগত রাত ১টার দিকে মাওয়া-কাওড়াকান্দি ফেরি রম্নটে পদ্মা অববাহিকায় ব্যাপক ঝড় ও বৃষ্টিপাত দেখা দেয়। এ সময় কাওড়াকান্দি ঘাট থেকে ছেড়ে আসা লেন্টিং ফেরিটি মাওয়া চৌরাসত্মা বরাবর পদ্মায় এসে পেঁৗছলে ঝড়ের তোড়ে ফেরিটি একটি ডুবোচরে আটকে যায়। ফেরিটিতে ৪টি ছোট গাড়ি, ১টি বাস, ও ৮টি ট্রাকসহ ৮০/৯০ জন যাত্রী ছিল। তাছাড়া মাওয়া ৩ নং ফেরি ঘাটের অদূরে ভাসমান ওয়ার্কশপে নোঙরে থাকা ফেরি যশোর, রামশ্রী ও ঢাকা নামের ফেরি ৩টিকে ঝড়ে মাওয়া থেকে ৪ কিলোমিটার দূরে লৌহজং সদরের কাছাকাছি পদ্মায় নিয়ে যায়। দীর্ঘ ১৪ ঘণ্টা চেষ্টার পর লেন্টিং ফেরিটিকে ট্রাক বোট দিয়ে রবিবার বিকেল তিনটার দিকে উদ্ধার করা হয়। এর পূর্বে বেলা ১২টার দিকে লৌহজং সদর বরাবর পদ্মার দুইটি পয়েন্ট ও মাওয়া চৌরাসত্মার কাছাকাছি পদ্মার ড্রেজিং পয়েন্ট এলাকা হতে অপর ফেরি তিনটি উদ্ধার করা হয়। দীর্ঘ ১৪ ঘণ্টা পদ্মার মাঝে ফেরিতে আটকা থেকে যাত্রীদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয়। তাছাড়া শনিবার রাতে ঝড়ের সময় প্রায় দুই ঘণ্টা মাওয়া-কাওড়াকান্দি রম্নটে ফেরি ও অন্যান্য নৌযান চলাচল বন্ধ ছিল।

[ad#co-1]