তিনটি ড্রেজারসহ গ্রেপ্তার ৭

ধলেশ্বরী নদীতে মুন্সিগঞ্জের ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার দুই ঘণ্টা অবরুদ্ধ
মজিবুল হক পলাশ, নারায়ণগঞ্জ থেকে: ধলেশ্বরী নদীর বন্দর উপজেলার মদনগঞ্জ চরে মুন্সিগঞ্জের এক ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) এবং পুলিশকে বালুমহালের ইজারাদারের লোকজন গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে দুই ঘণ্টা অবরুদ্ধ করে রাখে। এ সময় মুন্সিগঞ্জ সদর থানার দারোগা ইমরাত হোসেনকে অপরহণ করে নিয়ে যায় উক্ত লোকজন। খবর পেয়ে বন্দর থানা পুলিশ উক্ত ম্যাজিস্ট্রেট, সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও অপহৃত দারোগাকে উদ্ধার করে। এ ঘটনায় মুন্সিগঞ্জ সদর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে তিনটি ড্রেজারসহ ৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে।

জানা গেছে, মুন্সিগঞ্জ জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাদিউল ইসলাম ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মাহবুবুর রহমান ও সদর থানা পুলিশের এসআই ইমরাত হোসেনসহ একটি দল সকাল ১১টায় ধলেশ্বরী নদীর বন্দর উপজেলার মদনগঞ্জ চরে যান। এ সময় অবৈধভাবে বালুকাটার অভিযোগে ঘটনাস্থল থেকে ৩টি ড্রেজারসহ ৭ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। ড্রেজার ও গ্রেপ্তারকৃতদের নিয়ে যাওয়ার সময় ইজারাদারের লোকজন ম্যাজিস্ট্রেট সাদিউল ইসলাম ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মাহবুবুর রহমানকে দুই ঘণ্টা অবরুদ্ধ করে রাখে।

ম্যাজিস্ট্রেট সাদিউল ইসলাম জানান, ঘটনাস্থলে ২৫টি ড্রেজার দিয়ে চর এলাকা থেকে অবৈধভাবে বালু তোলা হচ্ছিল। এ সময় ৩টি ড্রেজার আটক ও ৭ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

আমাদের সময়
——————————————————

মুন্সিগঞ্জের মাজিস্ট্রেটসহ তিন জন অবরুদ্ধ : দারোগা অপহরণ, পরে উদ্ধার

বালুমহাল নিয়ে বিক্ষোভ

ধলেশ্বরী নদীর বন্দর উপজেলার মদনগঞ্জ চরে মুন্সিগঞ্জের এক ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) এবং পুলিশকে বালুমহালের ইজারাদারের সন্ত্রাসীরা মঙ্গলবার দুপুরে দুই ঘণ্টা অবরুদ্ধ করে রাখে। সন্ত্রাসীরা মুন্সিগঞ্জ সদর থানার দারোগা ইমারত হোসেনকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। পরে খবর পেয়ে বন্দর থানা পুলিশ গিয়ে অবরুদ্ধ ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার ভূমি এবং অপহৃত দারোগাকে উদ্ধার করে। মুন্সিগঞ্জ পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ৩টি ড্রেজার ও ৭ জনকে গ্রেফতার করেছে।

জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাদিউল ইসলাম ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মাহবুবুর রহমান ও সদর থানা পুলিশের এসআই ইমারত হোসেনসহ পুলিশের একটি দল ধলেশ্বরী নদীর বন্দর উপজেলার মদনগঞ্জ চরে আসেন। এসময় অবৈধভাবে বালুকাটার অভিযোগে ঘটনাস্থল থেকে ৩টি ড্রেজার ও ৭ জনকে গ্রেফতার করা হয়। ড্রেজার ও গ্রেফতারকৃতদের নিয়ে যাওয়ার সময় ইজারাদারের সন্ত্রাসীরা ম্যাজিস্ট্রেট সাদিউল ইসলাম ও সহকারী কমিশনার(ভূমি) মাহবুবুর রহমানকে ২ ঘন্টা অবরুদ্ধ করে রাখে। সন্ত্রাসীরা দারোগা ইমরাত হোসেনকে অপহরণ করে অন্যত্র নিয়ে যায়। খবর পেয়ে নারায়ণগঞ্জ বন্দর থানা পুলিশ তাদেরকে উদ্ধার করেন।

বন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হারুন-অর-রশিদ জানান, মুন্সিগঞ্জের জেলা প্রশাসনের ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার ভূমি এবং পুলিশ মদনগঞ্জ চরে ড্রেজার ও ৭ জনকে আটক করে নিয়ে যেতে চাইলে ইজারাদারের লোকজন তাদেরকে অবরুদ্ধ করে রাখে। ধলেশ্বরীর মদনগঞ্জ শাহ সিমেন্টে এলাকার চরে এক বছরের জন্য বালুমহালের ইজারা দিয়েছে নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসন। এই বালুমহালটি দাবি করছে মুন্সিগঞ্জ। কিন্তু এটা নারায়ণগঞ্জের অংশে পড়েছে। আমাদেরকে না জানিয়েই তারা নারায়ণগঞ্জের মধ্যে এসে ৩টি ড্রেজার ও ৭ জনকে গ্রেফতার করেছে।

ইত্তেফাক

[ad#co-1]