আজ মুন্সীগঞ্জে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল

আজ রবিবার মুন্সীগঞ্জে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল ডেকেছে জেলা বিএনপি। হরতালের সমর্থনে শনিবার শহরে সমাবেশ করেছে বিএনপি। শনিবার সন্ধ্যায় জেলা বিএনপির সভাপতি আব্দুল হাইয়ের নেতৃত্বে জেলা বিএনপি কার্যালয়ের সামনে সমাবেশ করে। সমাবেশের পরে শহরে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। মিছিলটি শহর প্রদক্ষিণ করার সময় শ্রীপল্লীর মোড়ে পুলিশ বাধা দেয়। পরে মিছিলটি আবার বিএনপি কার্যালয়ে গিয়ে শেষ হয়। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপি সভাপতি সাবেক উপমন্ত্রী মোঃ আব্দুল হাই, বিএনপি নেতা আতোয়ার হোসেন বাবুল, গোলজার হোসেন, আব্দুল আজিম স্বপনসহ দলীয় নেতৃবৃন্দ। এদিকে লৌহজং উপজেলার সামনে একই সময় বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় যুবদল নেতা আঃ সালাম আজাদ, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলী আসগর রিপন মল্লিক, বিএনপি নেতা নজরুল ইসলাম বাচ্চু। পরে বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। মিছিলটি সদর এলাকা প্রদক্ষিণ করে।

সদরঘাটের কাছে বুড়িগঙ্গায় ডুবে নিহত আকবর হোসেনকে যুবদল নেতা দাবি করে বিএনপি এই হরতালের ডাক দেয়। এবং আকবরের মৃত্যুর জন্য আওয়ামী লীগকে দায়ী করে। অন্যদিকে জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ জামাল হোসেন এ অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে বলেছে ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের জন্য এ হরতাল ডেকেছে।

এদিকে যুবদলের ডাকা হরতালের বিরুদ্ধে শনিবার রাতে মিছিল ও সমাবেশ করেছে উপজেলা আওয়ামী লীগ, যুব লীগ ও ছাত্রলীগ। মুন্সীগঞ্জের যুবদল নেতা আকবর হত্যার প্রতিবাদে গতকাল বিকেলে যুবদল মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ শেষে রবিবার হরতাল আহ্বান করলে রাত ৮টার দিকে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ যুবদলের ডাকা হরতালের নিন্দা করে উপজেলা সাব রেজিস্ট্র্রি অফিসের সামনে হরতালবিরোধী প্রতিবাদ সমাবেশ করে।

সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মামুন বেপারীর সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সেলিম আহমেদ মোড়ল, উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ ওসমান গনি তালুকদার, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক রশিদ শিকদার ও বাতেন বেপারী, মুন্সী দেলোয়ার, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মেহেদি হাসান, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন তপন, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি পিন্টু প্রমুখ। বক্তারা যুবদলের ডাকা হরতালকে অবৈধ বলে উল্লেখ করে হরতালকে প্রতিহত করা হবে বলে বক্তব্য রাখেন। উপজেলার প্রতিটি হাটবাজারে আওয়ামী লীগ ও তার অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ অতন্দ্র প্রহরীর মতো পাহারা দিয়ে হরতালকে প্রতিহত করে জনগণের জানমালের নিরাপত্তা দেবার প্রতিজ্ঞা করে বক্তব্য দেন। সমাবেশ শেষে একটি হরতালবিরোধী মিছিল উপজেলার প্রধান প্রধান সড়ক প্রদৰিণ করে।

জনকন্ঠ
—————————————————

মুন্সীগঞ্জে আজ সকাল-সন্ধ্যা হরতাল : ১৬ মাসে ৭ নেতাকর্মী খুন

ঢাকায় বিএনপির সমাবেশে যাওয়ার পথে সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনালে ঘাট শ্রমিক লীগের হামলায় নিহত যুবদল নেতা আকবর হোসেন হত্যার প্রতিবাদে মুন্সীগঞ্জে ডাকা হরতালের সমর্থনে গতকাল বিকালে জেলা শহরে এবং লৌহজংয়ে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। জেলা বিএনপির উদ্যোগে আয়োজিত মিছিলটি সুপার মার্কেট গোলচক্কর থেকে বের হয়ে মুন্সীগঞ্জ বাজারে পৌঁছলে পুলিশ তাতে বাধা দিলে আবার জেলা বিএনপি কার্যালয়ে গিয়ে শেষ হয়। এর আগে বিএনপি কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপি সভাপতি আঃ হাই, মোঃ মহিউদ্দিন, আতোয়ার হোসেন, গুলজার হোসেন, আঃ আজিম স্বপন প্রমুখ ।

এছাড়া হরতাল সফল করতে লৌহজং বিএনপির উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় যুবদল নেতা আঃ সালাম আজাদ। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলী আসগর রিপন মল্লিক, নজরুল ইসলাম বাচ্চু, কোহিনূর শিকদার, সাঈদ হাবীব, আবদুস সালাম মোল্লা।

জেলা বিএনপি সভাপতি ও সাবেক উপমন্ত্রী তার বক্তব্যে বলেন, গত ১৬ মাসে বর্তমান মহাজোট সরকার আমলে মুন্সীগঞ্জের ৭ নেতাকর্মীকে জীবন দিতে হয়েছে। তিনি আরও বলেন, ঢাকা-মাওয়া এবং ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে চলাচলকারী দূরপাল্লার যানবাহন হরতালের আওতামুক্ত থাকবে।

গজারিয়া (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি জানান, গতকাল বিকাল ৪টায় গজারিয়া উপজেলার ভবেরচর বাসস্ট্যান্ডে বিএনপির প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে গজারিয়া উপজেলা বিএনপির অধ্যাপক গিয়াস উদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মজিবুর রহমান, মোজাম্মেল হক (মিন্টু মিয়াজী), লোকমান হোসেন, বাদল মেম্বার, শফিকুল ইসলাম সিকদার, আঃ আহমদ রনি মাস্টার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। ১৯ মে ঢাকায় বিএনপির মহাসমাবেশে যোগ দেয়ার পথে সদরঘাট টার্মিনালে আ’লীগ সন্ত্রাসীরা হামলা চালালে পৌর যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক আকবর হোসেন নিহত হন।

আমার দেশ

[ad#co-1]