স্কেল ফিকসেশনের জন্য বকশিশ

জাতীয় বেতন স্কেল ফিকসেশন করার নামে মুন্সীগঞ্জের প্রাথমিক শিক্ষক-শিক্ষয়িত্রীদের কাছ থেকে ১শ’ ২০ থেকে ২শ’ টাকা করে চাঁদা আদায়ের ঘটনা মুন্সীগঞ্জে এখন ওপেনসিক্রেট। একশ্রেণীর শিক্ষক নেতা সংশিস্নষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে কাজ বাগিয়ে আনতে ওই টাকা নেন বলে ভুক্তভোগীরা দাবি করেছেন। তবে শিক্ষকদের সম্মানজনক পেশা হিসেবে সমাজে পরিচিতি থাকায় শিক্ষক নেতাদের ওই কুকর্ম কেউ আর বাইরে প্রকাশ করতে চান না।

মুন্সীগঞ্জ জেলা শিক্ষা অফিসের উপরের কর্তাদের খুশি করার নামে ৬ শতাধিক শিক্ষক-শিক্ষয়িত্রী তাদের বেতন থেকে ১শ’ ২০ থেকে ২শ’ টাকা করে নেতাদের হাতে তুলে দিয়েছেন। জাতীয় বেতন স্কেল ফিকসেশনের তাগিদে কাগজপত্র ঠিকঠাক করতে ওই টাকা দেয়া-নেয়াকে কেউ কেউ নজরানা নামে উলেস্নখ করেছেন একে। মুন্সীগঞ্জের চরাঞ্চলের হোগলাকান্দি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক সহকারী শিক্ষয়িত্রী নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, বেতন স্কেল ফিকসেশনের নামে টাকা উত্তোলনের বিষয়টি ওপেনসিক্রেট।

[ad#co-1]