অতীশ দিপংকরে সাংস্কৃতিক উৎসব

গতকাল শুক্রবার ছিল অতীশ দিপংকর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে সাংস্কৃতিক উৎসব। বিভিন্ন শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীরা নেচে-গেয়ে উৎসবটি উপভোগ করে। দীর্ঘদিন পর উৎসব আয়োজন করায় শিক্ষার্থীরা ছিল উচ্ছ্বসিত। রাজধানীর পরিকল্পনা ও উন্নয়ন একাডেমির মিলনায়তনে সকাল থেকে রাত পর্যন্ত চলে অনুষ্ঠান। এ উপলক্ষে ছাত্রীরা নানা রঙের শাড়ি পরে উৎসবে যোগ দেয়। তারা অংশ নিয়েছে নাচ, গান ও নাটকের অভিনয়ে। অনুষ্ঠানের প্রথম পর্বে আলোচনা অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি আনোয়ারা বেগম, প্রো-ভিসি অধ্যাপক আবুল হোসেন সিকদার, ট্রেজারার রাশিদুল হাসান, ব্যবসায় অনুষদের ডীন আজাহার উদ্দীন প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

ভিসি তার বক্তব্যে এমন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা তাদের প্রতিভা বিকাশের সুযোগ পাবে বলে মতামত দেন। তিনি বলেন, এমন অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে পৃষ্ঠপোষকতা করা হবে। আবুল হোসেন সিকদার বলেন, এমন অনুষ্ঠান আয়োজন শিক্ষার্থীদের ইতিবাচক চিন্তার বহিঃপ্রকাশ ঘটায়। তিনি পড়াশুনার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের এমন উৎসব আয়োজন করায় ধন্যবাদ জানান। দ্বিতীয় পর্বে শুরু হয় নাচ, গান, নাটক, আবৃতি, ফ্যাশন শোসহ নানা আয়োজন। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী তৃনা, মৌরি ও মিতুর নাচগুলো উৎসবের আমেজ বাড়িয়ে দিয়েছিল। এছাড়া তুষার ও মামুনের ম্যাজিক, মিথিলা, পাম্মী, ইমা, রায়হান (বিন্দু), আরিফ ও ফয়েজের ‘ডিজিটাল লাভ’ নাটক সবাইকে মুগ্ধ করে দিয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা জানায়, বিশ্ববিদ্যালয়ে দীর্ঘদিন ধরে তেমন কোন উৎসব হচ্ছিল না। এবারের এ উৎসবের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা তাদের প্রতিভা বিকাশের সুযোগ পাবে। তারা নিয়মিত এমন অনুষ্ঠান আয়োজনের দাবি জানান।

[ad#co-1]