রাজধানীতে কমবে বাড়তি যানবাহনের চাপ

মাওয়া থেকে বঙ্গবন্ধু সেতু সংযোগ সড়ক পর্যন্ত বাইপাস সড়কের পরিকল্পনা
দুলাল আহমদ চৌধুরী: পদ্মা সেতু চালু হওয়ার পর রাজধানীর ওপর যানবাহনের বাড়তি চাপ এড়াতে মাওয়া থেকে বঙ্গবন্ধু সেতু সংযোগ সড়ক পর্যন্ত বাইপাস সড়ক নির্মাণের পরিকল্পনা করছে সরকার। যোগাযোগ মন্ত্রণালয় মনে করছে, ৪২ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের এ সড়ক হলে ঢাকাকে এড়িয়েই দক্ষিণাঞ্চল থেকে উত্তরাঞ্চলে আসা-যাওয়া করা যাবে। ফলে রাজধানীতে বাড়তি যানজট সৃষ্টি হবে না। ২০১০-১১ অর্থবছরের বাজেটে ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক হতে পদ্মা সেতু এপ্রোচ পর্যন্ত (ওয়েস্টার্ন বাইপাস) সড়ক নির্মাণ নামে এ প্রকল্প অন্তর্ভুক্ত করার প্রস্তাব করেছে যোগাযোগ মন্ত্রণালয়। বিডিনিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম গতকাল এ প্রতিবেদনটি প্রকাশ করেছে।

যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম প্রধান (জয়েন্ট চিফ) মোছাম্মদ রোকেয়া বেগম বিডিনিউজকে বলেন, নতুন প্রকল্প হিসেবে আগামী অর্থবছরের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচিতে (এডিপি) প্রকল্পটি অন্তর্ভুক্তির প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। পদ্মা বহুমুখী সেতু নির্মাণের কাজ আগামী অর্থবছর থেকে শুরু হচ্ছে। ইতোমধ্যেই সেতু নির্মাণ সংক্রান্ত প্রাক-প্রস্তুতিমূলক কাজ শুরু হয়েছে। সরকারের ২০১৩ সালের মধ্যেই এ সেতু নির্মাণের কাজ শেষ করার পরিকল্পনা রয়েছে। চার লেনের বাইপাস সড়কটি হবে প্রস্তাবিত পদ্মা সেতু সংযোগ সড়কের মাওয়ার বাওরভিটা থেকে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের তুরাগ পয়েন্ট হয়ে যমুনা সেতু (বঙ্গবন্ধু সেতু) সংযোগ সড়ক পর্যন্ত। পদ্মা সেতু নির্মাণের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখেই ওয়েস্টার্ন বাইপাস প্রকল্পের বাস্তবায়নকাল ধরা হয়েছে ২০১০ সালের জুলাই থেকে ২০১৩ সালের জুন পর্যন্ত। সরকারের তত্ত্বাবধানে এর নির্মাণ ব্যয় ধরা হয়েছে ৩০০ কোটি টাকা। এটি নির্মাণ করবে সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর। ১৭০ ফুট প্রশস্তের চার লেনের এ রাস্তা তৈরি করতে প্রকল্প এলাকা ঢাকার কেরানীগঞ্জ, সাভার ও মুন্সীগঞ্জের ৮৯ হেক্টর ভূমি অধিগ্রহণ করতে হবে।

[ad#co-1]