মুন্সীগঞ্জে ৮ প্রতারক গ্রেপ্তার

পুলিশের সহযোগিতা নিয়ে বাংলাদেশ কনজুমার রাইটস সোসাইটির একদল প্রতারক মুন্সীগঞ্জ শহরের বিভিন্ন ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানে প্রবেশ করে গ্রেপ্তার ও টাকা দাবি, মালামাল সিজ করার ঘটনায় ৮ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বুধবার বিকাল মুন্সীগঞ্জ সদর থানার একদল পুলিশ নিয়ে ৮ সদস্যের প্রতারক দলটি বিভিন্ন ওষুধের দোকান ও খাবার হোটেলে অভিযানে নামলে ব্যবসায়ীদের মধ্যে আতঙ্ক দেখা দেয়।

বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে পুরনো কাচারি চত্বরের সোব মেডিকেল হল নামক ওষুধের দোকানে প্রবেশ করে। এ সময় প্রতারক দলটি রফিকুল ইসলাম (৩০) নামে এক ওষুধ ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। ওষুধের দোকানে কোন ম্যাজিস্ট্রেট ড্রাগ সুপার ছাড়া প্রবেশ, ওষুধ ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার ও ওষুধ সিজের বিষয়টি তাদের এখতিয়ার বহির্ভূত বলে জেলা কেমিস্টস এন্ড ড্রাগিস্ট সমিতির সহ-সভাপতি সাংবাদিক মোজাম্মেল হোসেন সজল চ্যালেঞ্জ করেন। এ ঘটনার পর পুলিশ প্রশাসনের টনক নড়ে। এএসপি সদর সার্কেল দেওয়ান লালন আহমেদ থানায় দ্রম্নত এসে তাদের আটক করে। প্রতারকচক্রের সদস্যরা হলো কনজুমার রাইটস সোসাইটির পরিচালক নুরম্নল ইসলাম, অতিরিক্ত পরিচালক দীন ইসলাম, পরিচালক (অপারেশন) দেবপ্রদ দত্ত, চিফ ইনচার্জ ইয়াসমিন, সহকারী পরিচালক সিরাজুল ইসলাম, হিউম্যান রাইটস ডেপুটি ডাইরেক্টর (বাংলা) আবদুর রাজ্জাক, ইনচার্জ বিলস্নাল হোসেন ও সাতড়্গীরা জেলার পরিচালক এম এ মালেক।

[ad#co-1]