হিমাগার মালিক সমিতির প্রতিবাদ প্রতিবেদকের বক্তব্য

বাম্পার ফলন নিয়ে মুন্সিগঞ্জের আলুচাষিদের সমস্যা বিষয়ে গত ৪ এপ্রিল প্রথম আলোতে প্রকাশিত প্রতিবেদনের প্রতিবাদ জানিয়েছে হিমাগার মালিকদের সংগঠন বাংলাদেশ কোল্ড স্টোরেজ অ্যাসোসিয়েশন। অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষে বলা হয়েছে, বিদ্যুৎ ও অন্য জ্বালানির উচ্চমূল্য এবং শ্রমিক-কর্মচারীর বেতন বৃদ্ধির পরিপ্রেক্ষিতেই অ্যাসোসিয়েশন এবার প্রতি বস্তা আলুর (৮০ কেজি) ভাড়া ২৬০ টাকা নির্ধারণ করেছে। প্রতিবাদপত্রে খবরে প্রকাশিত মুন্সিগঞ্জ জেলা প্রশাসনের বক্তব্য মোটেও তথ্যভিত্তিক ও সঠিক নয় বলে দাবি করা হয়। এতে আরও বলা হয়, ‘অস্বাস্থ্যকর প্রতিযোগিতার কারণে’ কিছু মালিকের নেওয়া কম ভাড়াকে ভিত্তি হিসেবে ধরে জেলা প্রশাসন এককভাবে ও এখতিয়ার-বহির্ভূতভাবে নিম্নহারে ভাড়া নির্ধারণের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

প্রতিবেদকের বক্তব্য: প্রকাশিত প্রতিবেদনে প্রথম আলোর নিজস্ব কোনো মতামত নেই। সরেজমিন দেখে ভুক্তভোগী কৃষকদের বক্তব্য এতে তুলে ধরা হয়েছে। আর জেলা প্রশাসক বলেছেন, স্থানীয় সাংসদসহ সংশ্লিষ্টদের উপস্থিতিতে হিমাগার মালিকদের বৈঠক হয়েছে। ওই বৈঠকেই সাংসদসহ সবাই হিসাব করে দেখেছেন ১৭০ টাকা ভাড়া নির্ধারণ করা হলে হিমাগার মালিক ও কৃষক উভয়ই লাভবান হন। হিমাগার মালিকদের অনেকেই এই নির্ধারিত ভাড়া মেনে আলু সংরক্ষণও করছেন।