মুন্সীগঞ্জে পরীক্ষা বাণিজ্য

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার কুচিয়ামোরায় বিক্রমপুর আদর্শ ডিগ্রি কলেজে পরীক্ষা বাণিজ্য চলছে। আসন্ন এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে প্রবেশপত্র বাবদ অতিরিক্ত ৫০০ টাকা আদায় করছে কলেজ কর্তৃপক্ষ। এ নিয়ে পরীক্ষার্থীদের সঙ্গে কলেজ কর্তৃপক্ষের বিরোধ সৃষ্টি হয়। প্রবেশপত্রের জন্য ৫০০ টাকা দেবে না বলে প্রতিবাদ জানায় এইচএসসি পরীক্ষার্থীরা। কিন্তু কলেজ কর্তৃপক্ষ এ টাকা ছাড়া কোনো পরীক্ষার্থীকে প্রবেশপত্র দেয়া হবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে। এতে কলেজে হট্টগোলের সৃষ্টি হয়। এ ব্যাপারে কলেজ ম্যানেজিং কমিটিকে পরীক্ষার্থীরা অবহিত করলেও কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়নি।

বিক্রমপুর আদর্শ ডিগ্রি কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থীরা জানায়, এইচএসসি পরীক্ষার ফরম ফিলাপ ও কোচিং ফি বাবদ কলেজ কর্তৃপক্ষ ৫০০০ থেকে ৫৫০০ টাকা করে নিয়েছে। কিন্তু অন্যান্য কলেজে ফরম ফিলাপের জন্য ১৪০০ থেকে ১৫০০ টাকা নেয়া হয়। এখন প্রবেশপত্র আনতে গেলে আরো ৫০০ টাকা দিতে পরীক্ষার্থীদের বাধ্য করা হচ্ছে। এ কলেজ থেকে এবার বিজ্ঞান, মানবিক ও বাণিজ্য বিভাগের মোট ১৮০ জন এইচএসসি পরীক্ষায় অংশ নিতে যাচ্ছে। এর মধ্যে কিছু পরীক্ষার্থী ৫০০ টাকা দিয়ে প্রবেশপত্র নিয়েছে। তবে অধিকাংশ পরীক্ষার্থী এ অতিরিক্ত টাকা দিয়ে প্রবেশপত্র নিতে অনীহা প্রকাশ করেছেন। ম্যানেজিং কমিটির সদস্য আব্বাস বেপারী ও আয়নাল হককে এ ব্যাপরে জানালে তারা কোনো পদক্ষেপ নেয়নি। এদিকে কলেজ অধ্যক্ষ ছুটিতে রয়েছেন। উপাধ্যক্ষ সাদেক আলী ভূইয়ার সঙ্গে দুদিন ধরে ফোনে যোগাযোগ করে পাওয়া যাচ্ছে না।

[ad#co-1]