কোল্ড স্টোরেজে কৃত্রিম শ্রমিক সংকট: বিপাকে আলুচাষী

কাজী দীপু, মুন্সীগঞ্জ: মুন্সীগঞ্জের ৫৯ টি কোল্ড ষ্টোরেজে কৃত্রিম শ্রমিক সংকট সৃষ্টি করে কৃষকের কাছ থেকে হাজার হাজার টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে শ্রমিকরা। শ্রমিকদের দাবী অনুযায়ী টাকা দিলেই তারা কৃষকের আলু কোল্ড ষ্টোরেজে সংরক্ষনের ব্যবস্থা নিচ্ছেন। আর ০যে সব কৃষক দাবী পালনে অপারগতা প্রকাশ করছে তাদের আলু ২/৩ দিনেও ট্রলার, ট্রাক ও ট্রলি থেকে খালাস করা হচ্ছে না। এতে কৃষকদের আর্থিক খরচ বৃদ্ধি পাওয়ায় বাধ্য হয়েই শ্রমিকদের দাবী অনুযায়ী বস্তা প্রতি দ্বিগুন টাকা দিয়ে কোল্ড ষ্টোরেজ গুলোতে আলু সংরক্ষণ করছেন।

কোল্ড ষ্টোরেজে আলু সংরক্ষণ করতে আসা আসলাম মিয়া জানান, তিনি পশ্চিম মুক্তারপুরস্থ দেওয়ান কোল্ড স্টোরেজে ৩শ বস্তা আলু রাখতে গিয়ে ৩ দিন ধরে ধরনা দিচ্ছেন। কোল্ড স্টোরেজ কর্তৃপক্ষ শ্রমিককে বস্তা প্রতি ১৩ টাকা করে পারিশ্রমিক নির্ধারন করে দেয়ায় শ্রমিকদের তা পুষছে না। এর ফলে তারা কৃষকসহ যারা আলু সংরক্ষণ করছেন তাদের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকার দাবীতে চুক্তি করে আলু লোড আনলোড করছে। তা না হলে কৃত্রিম শ্রমিক সংকট দেখিযে শ্রমিকরা কৃষকের আলু ধরছে না। এতে একদিকে কৃষকদের পরিবহন ভাড়া বৃদ্ধিা পাচ্ছে অন্যদিকে শ্রমিক মজুরীও।

কৃষক আবুল শেখ জানান, তিনি একদিনের জন্য ৩ হাজার টাকায় ইঞ্জিন চালিত ট্রলার ভাড়া করে নিপ্পন কোল্ড ষ্টোরেজে আলু এনেছেন। এখন শ্রমিকদের দ্বিগুন পারিশ্রমিক না দেয়ায় ৩ দিন ধরে তার আলু ট্রলারেই পড়ে আছে। এতে ট্রলার ভাড়া ৩ হাজারের পরিবর্তে ৯ হাজার টাকায় দাড়িয়েছে।

[ad#co-1]