লৌহজং উপজেলার ডাকবাংলো নির্মাণ বন্ধ ॥ টেকনিশিয়ান লাঞ্ছিত

উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যানের হস্তক্ষেপ
উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যানের হসত্মৰেপে লৌহজং উপজেলা ডাকবাংলোর নির্মাণ বন্ধ হয়ে গেছে। বুধবার সকালে পূর্বনির্ধারিত ছাদ ঢালাইয়ের প্রস্তুতি দেখতে বাসত্মবায়নকারী প্রতিষ্ঠান জেলা পরিষদের ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের এক টেকনিশিয়ান হাজির হন। এ সময় সেখানে থাকা উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান জাকির ব্যাপারী পূর্ব সিদ্ধানত্ম অনুযায়ী আগে পুকুর ভরাট করে পরে ছাদ ঢালাই করতে বলেন। এই নিয়ে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে জাকির ব্যাপারী টেকনিশিয়ান রিয়াদ হাসানকে (৩৫) লাঞ্ছিত করেন। ৭৭ লাখ ৮৪ হাজার টাকা ব্যয়ে নির্মিতব্য এই কাজের ঠিকাদার শাওন এন্টারপ্রাইজের মালিক আবুল হোসেন লিখিতভাবে অভিযোগ করেছেন ভাইস চেয়ারম্যান তাঁকে হুমকি দিয়ে কাজ বন্ধ করতে বলেছেন। ুজেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোফাজ্জেল হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেছেন, আমার সহকমর্ীকে লাঞ্ছিত করায় আমরা মর্মাহত। সরকারী উন্নয়ন কাজে এমন ব্যাঘাত সৃষ্টির ঘটনাও দুঃখজনক। আমরা আইনগতভাবে ব্যবস্থা নিচ্ছি।

যোগাযোগ করা হলে জাকির ব্যাপারী এ ব্যাপারে জানান, বেজগাঁ ইউপির জায়গায় এই ডাকবাংলো নির্মাণ করা হয়। কিন্তু পাশের পুকুর ভরাট করে দেয়ার পূর্ব সিদ্ধানত্ম থাকলেও তা করা হয়নি। এ কারণেই অনভিপ্রেত ঘটনা ঘটে যায়। অন্যদিকে জেলা পরিষদের সহকারী প্রকৌশলী আব্দুল হালিম মিয়া জানান, এমন কথার সুযোগ নেই। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লিখিতভাবে জায়গা দেয়ার পরই এই নির্মাণ শুরম্ন হয়। পুকুর ভরাটের জন্য অর্থ বরাদ্দ নেই।

[ad#co-1]