হুমায়ুন আজাদ হত্যাচেষ্টা: জেএমবির সালেহীন চারদিনের রিমান্ডে

অধ্যাপক হুমায়ুন আজাদ হত্যাচেষ্টা মামলায় জেএমবির শুরা সদস্য সালাহউদ্দিন ওরফে সালেহীনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য চারদিন সিআইডি হেফাজতে নেওয়ার আদেশ দিয়েছে আদালত। এ মামলায় অধিকতর তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের নির্ধারিত দিন সোমবার দুপুরে ঢাকার ১ নম্বর অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম মোহাম্মদ আলী হোসাইন এ আদেশ দেন।

ওই আদালতের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর মো. সাইফুল ইসলাম হেলাল এবং মামলার বাদি মঞ্জুর কবিরের ব্যক্তিগত আইনজীবী আয়াত আলী পাটোয়ারি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে হেফাজতের তথ্য নিশিচত করেছেন।

পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) পরিদর্শক মো. মোস্তাফিজুর রহমান তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাতদিন হেফাজতে নেওয়ার আবেদন জানান। আবেদনের শুনানি শেষে বিচারক ওই আদেশ দেন।

আবেদনে বলা হয়, হুমায়ুন আজাদ হত্যাচেষ্টায় সালেহীনের সম্পৃক্ততার প্রাথমিক প্রমাণ পাওয়া যাচ্ছে। এর আগে গ্রেপ্তার হওয়া এ মামলার অন্যতম আসামি মিনহাজ জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদে পরোক্ষভাবে সালেহীনের কথা বলেছে। তাই তাকে জ্ঞিাসাবাদ করা জরুরি।

এ মামলায় গ্রেফতার দেখানো জেএমবির আরেক শুরা সদস্য হাফেজ মাহমুদ ওরফে রকিব হাসান ওরফে রাসেলকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্যও সাতদিনের হেফাজত চাওয়া হয়।

হাফেজকে বাগেরহাট কারাগার থেকে আদালতে আনা সম্ভব না হওয়ায় আগামি ২২ মার্চ তার হেফাজতের শুনানির দিন নির্ধারণ করা হয়েছে।

কুমিল্লা কারাগারে আটক জেএমবি’র শুরা সদস্য মো. মিজানুর রহমান মিনহাজ ওরফে শফিক ওরফে শাওনকে একই আদালত জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি দেয় গত বছরের ২৪ ডিসেম্বর।

মামলার বাদি হুমায়ুন আজাদের ভাই মঞ্জুর কবির ঢাকার ওই আদালতে মামলায় অধিকতর তদন্তের আবেদন করেন গত বছর ।

মামলাটিতে নতুন তদন্ত কর্মকর্তা হিসাবে দায়িত্ব পান সিআইডির পরিদর্শক মো. মোস্তাফিজুর রহমান।

বহুমাত্রিক লেখক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের অধ্যাপক হুমায়ুন আজাদ ২০০৪ সালের ২৭ ফেব্র”য়ারি রাতে একুশে বইমেলা থেকে বাসায় ফেরার পথে তার ওপর বাংলা একাডেমীর উল্টোদিকের ফুটপাতে হামলা হয়।

এ ঘটনায় হুমায়ুন আজাদের ছোট ভাই মঞ্জুর কবির রমনা থানায় অঞ্জাতনামাদের আসামি করে মামলা করেন।

পরে হত্যাচেষ্টা মামলাটি বিচারের জন্য ঢাকার প্রথম অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে আসে। মঞ্জুর কবির এ আদালতে মামলার অধিকতর তদন্তের আবেদন করেন।

গত ১৮ অক্টোবর এ আবেদন শুনানি করে সেসময়কার বিচারক এহসানুল হক ২০ ডিসেম্বরের মধ্যে সিআইডির অতিরিক্ত মহা-পরিদর্শককে অধিকতর তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন।

[ad#co-1]