মুন্সিগঞ্জে পুকুর থেকে ধারালো অস্ত্র উদ্ধার

মুন্সিগঞ্জের টঙ্গিবাড়ী উপজেলায় গত শনিবার প্রতিপক্ষের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে ইব্রাহীম (২০) নামের এক যুবকের পা বিচ্ছিন্ন হওয়ার ঘটনায় গতকাল সোমবার থানায় মামলা হয়েছে। মামলায় কাঁঠাদিয়া শিমুলিয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি শাহীন ফকিরসহ ১৪ জনকে আসামি করা হয়েছে। পুলিশ গতকাল সন্ধ্যায় ছাত্রলীগের নেতা শাহিনের ধামারনের বাড়ির পুকুর থেকে দুটি চায়নিজ কুড়াল, তিনটি ছোরা, একটি জুইত্যা ও রামদা উদ্ধার করেছে। তবে শাহীনকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি। ইব্রাহীমের ওপর হামলার প্রতিবাদে এলাকাবাসী টঙ্গিবাড়ী উপজেলা সদরে ইব্রাহীমের কাটা পা নিয়ে বিক্ষোভ করে।
প্রথম আলো
—————————————————–

ছাত্রলীগ নেতার নৃশংসতা মুন্সীগঞ্জে কাটা পা নিয়ে এলাকাবাসীর বিক্ষোভ

মুন্সীগঞ্জের টঙ্গীবাড়ী উপজেলার কাঠাদিয়া-শিমুলিয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শাহিন ফকির তার ভাতিজা ইব্রাহিমের পা কেটে নিয়েছে। এ ঘটনায় গতকাল বিক্ষুদ্ধ এলাকাবাসী কাটা পা নিয়ে উপজেলা চত্বরে বিক্ষোভ মিছিল করে। ঘটনায় হতভাগ্য ইব্রাহীমের মা রীনা বেগম বাদী হয়ে ১৪ জনকে আসামি করে টঙ্গীবাড়ী থানায় মামলা করেছেন। নৃশংসতার শিকার ইব্রাহীম সৌদী প্রবাসী শুকুর আলীর ছেলে। ইব্রাহীম এখন মৃত্যু যন্ত্রণায় হাসপাতালে কাতরাচ্ছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, গত বৃহস্পতিবার কাঠাদিয়া-শিমুলিয়া ইউনিয়নের ধামারণ গ্রামের যৌথমালিকানাধীন পুকুরে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে লালু ফকিরের ছেলে ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শাহীন ফকিরের সঙ্গে ভাতিজা ইব্রাহীম ও তার আত্মীয়-স্বজনের বিবাদ বাধে। এর জের ধরে শাহীন ফকির ইব্রাহীমের ওপর ধারাল অস্ত্র দিয়ে আঘাত করলে তার পা প্রায় বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতাল নেয়া হলে তার পা কেটে ফেলা হয়। নির্মম এই ঘটনায় এলাকাবাসী তীব্র ক্ষোভ ও নিন্দা জানিয়েছে। দোষীদের গ্রেফতারের দাবিতে টঙ্গীবাড়ী উপজেলার প্রধান প্রধান সড়কে বিক্ষোভ মিছিল করেছে তারা।

ইব্রাহীমের মা রীনা বেগমের অভিযোগ, ২১ ফেব্রুয়ারি তিনি মামলা করতে গেলে টঙ্গীবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তা এজহারভুক্ত করতে অনীহা প্রকাশ করেন। এদিকে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবদুল্লাহ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, সোমবার গুরুতর আহত ইব্রাহীমের মা মামলা দায়ের করেছেন এবং দোষীদের গ্রেফতারে পুলিশ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

আমার দেশ

[ad#co-1]