মাওয়ার সিবোট ও ট্রলার ঘাট সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে

ফেরিতে হামলার জের
মাওয়া ফেরিঘাট এলাকা থেকে সিবোট ও ট্রলারঘাট দু-এক দিনের মধ্যেই স্থানান্তর করা হবে। লৌহজং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মাহামুদুর রহমান হাবিবের সভাপতিত্বে মাওয়া বিআইডবি্লউটিএ কার্যালয়ে গতকাল অনুষ্ঠিত এক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

গত রবিবার মাওয়া ১ নম্বর ঘাটে যশোর নামের ফেরিটি ভেড়ার সময় পন্টুনের পাশে থাকা কয়েকটি সিবোটকে ধাক্কা দেয়। এতে চার-পাঁচটি সিবোট নদীর তীরে উঠে যায়। এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয়ে সিবোটের চালকরা যশোর ফেরিতে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাঙচুর করে। এ হামলায় ১০ জন আহত হন।

এ ঘটনার প্রতিবাদে এবং মাওয়া ফেরিঘাট এলাকা থেকে সিবোট ও ট্রলারঘাট সরিয়ে নেওয়ার দাবিতে রবিবার সন্ধ্যা ৭টা থেকে মাওয়া-কাওরাকান্দি নৌরুটে অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘট আহ্বান করেন ফেরির স্টাফরা। এ সময় ঘাটে দেখা দেয় বিরাট যানজট। রাত ১০টার দিকে প্রশাসনের আশ্বাসের পরিপ্রেক্ষিতে স্টাফরা ধর্মঘট প্রত্যাহার করেন।

[ad#co-1]