দেবোত্তর সম্পত্তি দখল

মুন্সীগঞ্জ জেলার টঙ্গীবাড়ী থানাধীন দীঘিরপাড় ইউনিয়নের ‘মূলচর’ একটি হিন্দু অধ্যুষিত এলাকা। হিন্দু মতাবলম্বীদের জন্য ‘অক্ষয় বাবুর পার্ক’ এখানকার একটি বিখ্যাত পুণ্যস্থান। ‘ধর্মই একমাত্র বন্ধু, যা মরণেও অনুগমন করে’_ হিন্দুশাস্ত্রের এই অমর বাণীর উদ্দীপনায় ও দেবতার স্মৃতি চিরস্মরণীয় করার মানসে উনিশ শতকের শুরুর দিকে সর্বজন শ্রদ্ধেয় অক্ষয় বাবু পার্কের এ জমিটি চিরস্থায়ীভাবে দেবতার উদ্দেশে উৎসর্গ করে এবং তাতে মন্দির নির্মাণ করে দেবমূর্তির প্রতিষ্ঠা করে প্রতিনিয়ত পূজা-অর্চনার ব্যবস্থা করেন। তখন থেকেই এখানে স্থানীয় হিন্দু সম্প্রদায় একনাম কীর্তন, শীতলা পূজা, কালী পূজা, সরস্বতী পূজা, গলাইয়া (পহেলা বৈশাখের মেলা) পুণ্যস্নানসহ অন্যান্য ধর্মীয় আচার পালন করে আসছে। ‘মূল চরের স্নান’ নামে খ্যাত অক্ষয় বাবুর পার্কের এ পুণ্যস্নান শুধু বাংলাদেশে নয়, গোটা ভারত উপমহাদেশের হিন্দু সম্প্রদায়ের কাছে অত্যন্ত স্পর্শকাতর একটি ধর্মীয় আচার। কিন্তু অত্যন্ত দুঃখের বিষয়, এ ইউনিয়নের এক প্রভাবশালী ব্যক্তি এ সম্পত্তিটি দখলের পাঁয়তারা করছে। দখলদার ব্যক্তির অদৃশ্য শক্তির প্রভাবে কোনো বিশিষ্ট ব্যক্তিই এখন পর্যন্ত মুখ খুলতে সাহস পায়নি। কিন্তু কেন? এর সদুত্তর দেওয়ারও কেউ নেই? সবই অদৃশ্য শক্তির খেলা। তবে কি দুর্বলের পক্ষে কথা বলার মতো কেউ এদেশে নেই!

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক, টঙ্গীবাড়ী, মুন্সীগঞ্জ

[ad#co-1]