মুন্সীগঞ্জে বইমেলায় প্রাণের স্পন্দন

জেলা শিল্পকলা একাডেমী প্রাঙ্গণে ৫ দিনব্যাপী বইমেলা শুরম্ন হয়েছে। বইমেলার পাশেই চলছে নাটক ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। প্রথম দিনে জেলা শিল্পকলা একাডেমীর প্রাঙ্গণে মঞ্চস্থ করে নাটক পাহারাদার ও মনোঞ্জ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রম্নয়ারি আমি কি ভুলিতে পারি… এমন নানা গানে মুখরিত হয়ে উঠেছে মেলা অঙ্গন। বইমেলায় প্রাণের লেগেছে স্পন্দন!

বুধবার বিকেলে এই আসরের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মোঃ মোশারফ হোসেন। এতে উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার সফিকুল ইসলাম,সদর উপজেলার চেয়ারম্যান মোঃ আনিসুজ্জামান, এডিএম হাসানুল ইসলাম ও জেলা শিল্পকলা একাডেমীর সদস্য সচিব মীর নাসিরউদ্দিন উজ্জ্বল প্রমুখ। জেলা প্রশাসনের পাঁচ দিনব্যাপী এই আয়োজনের ব্যবস্থাপনায় রয়েছে জেলা শিল্পকলা একাডেমী ও সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট। শিল্পকলার পরিবেশনায় নাটক জাহাঙ্গীর আলম ঢালী রচিত নাটক ‘পাহারাদার’ দেখতে মানুষের ভিড় পড়ে যায়। জেলা শিল্পকলা একাডেমীর সদস্য সচিব মীর নাসিরউদ্দিন উজ্জ্বল জানান, বইমেলার পাশাপাশি প্রতিদিনই নাটক, নৃত্যানুষ্ঠান ও নানা গানে সাজানো হয়েছে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

শিশু আনন্দমেলা সম্পন্ন

অন্যদিকে শিশু আনন্দ মেলা বুধবার শেষ হয়েছে। জেলা প্রশাসক মো. মোশারফ হোসেন জেলা শিল্পকলা একাডেমী মিলনায়তনে সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষণ দেন। পরে ২ দিনব্যাপী এই মেলায় বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। পুরস্কার বিতরণ শেষে এক মনোঞ্জ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

[ad#co-1]