মুন্সীগঞ্জে মন্দিরের মূর্তি ও শ্মশান ভাঙচুর

কাজী দীপু মুন্সীগঞ্জ: লৌহজং উপজেলার পূর্বকলমা দাসপাড়া গ্রামে সোমাবার রাতে কালি মন্দিরের ৩ টি মূর্তি ও নব নির্মিত শ্মসান ভাঙচুর করেছে সন্ত্রাসীরা। খবর পেয়ে গতকাল মঙ্গলবার লৌহজং থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ ঘটনায় কলমা গ্রামের ৫ শতাধিক হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছে। বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি মণ্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট অজয় চক্রবর্তী ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন।

পুজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি শ্রী সম্ভু মণ্ডল জানায়, গত শনিবার এই শ্মাশান ঘাটের কালি মন্দীরে কালি পূজা উদযাপনকালে স্থানীয় আলম ভুঁইয়া, পাভেল শেখ ও মাসুদ ভুঁইয়া বাধা দেন এবং স্থানীয় আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর ফকির ও সাধারণ সম্পাদক অরুণের উপস্থিতে তারা হুমকি দেয় শ্বাশান ঘাট সরিয়ে নেয়া না হলে বোমা মেরে উড়িয়ে দেয়া হবে।

এতে আওয়ামী লীগ নেতারা বিষয়টি মিটিয়ে দিলে থানা পুলিশের সহযোগিতায় সংখ্যালঘু সম্প্রদায় তাদের পূজা উদযাপন করে। এর মধ্যে সোমবার ভোর রাতে সন্ত্রাসীরা শ্মশানসহ মন্দিরের মূর্তি ভাঙচুর করে। লৌহজং পুলিশ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

[ad#co-1]