ভিক্ষুকদের মাওয়ার ওপারে রেখে এলো পুলিশ

রাজধানীতে ভিক্ষুক, নেশাখোর ও ভবঘুরেদের বিরম্নদ্ধে অভিযানে নেমেছে পুলিশ। গতকাল নগরীর তেজগাঁও জোনের পাঁচ থানা পুলিশ একযোগে অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন স’ান থেকে প্রায় দুই শতাধিক ভিক্ষুক ও ভবঘুরেকে আটক করেছে।

তাদের ট্রাকে করে ঢাকার বাইরে বুড়িগঙ্গা নদী পার করে মাওয়া ফেরিঘাট এলাকায় নিয়ে রেখে এসেছে পুলিশ। পুলিশের পক্ষ থেকে তাদের শাসিয়ে দিয়ে বলা হয়েছে- তারা যেন আর ঢাকায় ফিরে না আসে। ঢাকার রাসত্মায় তাদের ভিক্ষা করতে দেখলে গ্রেপ্তার করে আইন অনুযায়ী ব্যবস’া নেয়ার কথাও বলে দেয়া হয়েছে।

পুলিশ জানায়, নগরীর রাসত্মার মোড়ে, বিভিন্ন সড়কে, ওভারব্রিজে, আন্ডার পাস, ফুটপাথ ও বিভিন্ন মার্কেটের সামনে ভিক্ষুক ও নেশাখোরদের আনাগোনা বেড়ে গেছে। ভিক্ষুক ও ভবঘুরেরা নেশা করে মাতাল হয়ে পথচারীদের চলার পথে সমস্যা সৃষ্টি করে। বিভিন্ন সড়কে জ্যামে আটকে থাকা প্রাইভেটকারে আরোহীদের কাছে নানা ভঙ্গিতে ভিক্ষা চায় তারা। রাষ্ট্রীয় অতিথিশালা, ফাইভস্টার হোটেল, ভিআইপি সড়কে সকাল থেকে রাত পর্যনত্ম প্রতিদিনই এ ধরনের লোকজন চোখে পড়ে। তাই সরকারের নির্দেশে ভিক্ষুক নিধন অভিযান শুরম্ন করা হয়। তেজগাঁও থানার ওসি মাহবুবুর রহমান বলেন, সাধারণ মানুষ ও পথচারীদের চলাচলে সুবিধার জন্য ভিক্ষুক ও ভবঘুরেদের আটক করে এক স’ান থেকে অন্য স’ানে সরিয়ে দেয়ার ব্যবস’া করছে পুলিশ। গতকাল বিকাল ৩টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যনত্ম তেজগাঁও, মোহাম্মদপুর, আদাবর, শিল্পাঞ্চল ও শেরেবাংলা নগর থানা পুলিশ অভিযান চালায়। তেজগাঁওয়ের কদম সার্ক ফোয়ারা, সোনারগাঁও ক্রসিং, বিজয় সরণি, ফার্মগেট সোনারগাঁও রোড ও পান’পথ এলাকা থেকে ৩৫ জনকে আটক করে। শেরেবাংলা নগর থানা পুলিশ গ্রেপ্তার করে ৩০ জনকে। আদাবর তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল ও মোহাম্মদপুর থানা পুলিশ প্রায় দেড় শতাধিক ব্যক্তিকে আটক করে। তাদের ট্রাকে করে বুড়িগঙ্গা পার হয়ে মাওয়া ফেরিঘাটসহ বিভিন্ন এলাকায় নিয়ে রাখা হয়েছে। পুলিশ জানায়, আটককৃতদের বলে দেয়া হয়েছে, তারা নিজ নিজ এলাকায় থাকবে। সেখানে শ্রম দিয়ে জীবিকা নির্বাহ করবে। ঢাকায় যেন তারা আর ফিরে না আসে এ ব্যাপারেও শাসিয়ে দেয়া হয়েছে। এক পুলিশ কর্মকর্তা জানান, ভিক্ষুকদের আটক করা পুলিশের রম্নটিন ডিউটি। আগেও এ ধরনের অভিযান চালানো হয়েছে। তবে বর্তমানে নগরীতে ভবঘুরে, ভিক্ষুক ও নেশাখোরদের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় পুলিশ আবার অভিযানে নেমেছে। আজ বুধবারও পুলিশ অভিযান চালাবে বলে জানা যায়।