মেঘনা, ধলেশ্বরী ও শীতলক্ষ্মায় চাঁদাবাজি

কাজী দীপু, মুন্সীগঞ্জ: মেঘনা ধলেশ্বরী ও শীতলক্ষ্মা নদী পথে সন্ত্রাসীরা চাঁদাবাজি করলে তাদের গ্রেফতারর জন্য পুলিশকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এছাড়া ইজারাদারদের বালু মহালের ২০০ গজের ভেতর টোকেন কাটার কথা জানিয়ে দিয়ে বলা হয়েছে, এই নির্দেশনার বাইরে টোকেন কাটলে ইজারাদারদেরও গ্রেফতার করা হবে।

গত মঙ্গলবার রাতে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসকের সভাকক্ষে কার্গো-বাল্কহেড বোট, ভলগেট বালু শ্রমিক-মালিক ও মেঘনা-ধলেশ্বরী নদীর বালু মহালের ইজারাদারদের সঙ্গে মুন্সীগঞ্জ-নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারদের অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে এই নির্দেশ দেয়া হয়। বালু শ্রমিকদের অব্যাহত ধর্মঘটের প্রেক্ষিতে তা প্রত্যাহারের লক্ষ্যে ওই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় বালু শ্রমিকরা নদী পথে বালু মহালের ইজারাদার ও একাধিক পয়েন্টে চাঁদাবাজদের হাতে নির্যাতনের চিত্র প্রশাসনের কাছে তুলে ধরেন। এ সময় প্রশাসন বালু শ্রমিকদের ধর্মঘট তুলে নিয়ে কাজে নেমে যেতে বলেছেন। ওই বৈঠকে মুন্সীগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো. মোশারফ হোসেন, পুলিশ সুপার মো. শফিকুল ইসলাম, নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসক শামসুর রহমান, পুলিশ সুপার বিশ্বাস আফজাল হোসেন ছাড়াও বালু মহালের ইজারাদার ও কার্গো-ভলগেট-বাল্কহেড মালিক-শ্রমিক নেতারা উপস্থিত ছিলেন ।

[ad#co-1]