প্রেমের ফাঁদে ফতুল্লায় তরুণীকে ধর্ষণ

প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিয়ের প্রলোভনে বাড়ি থেকে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় ডেকে এনে ঢাকার মিরপুরের এক তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ধর্ষণে সহায়তার অভিযোগে ফতুল্লা থানার পুলিশ ধর্ষক যুবকের মামী থানার কাশীপুর এলাকার মৃত হাসু মিয়ার স্ত্রী বেবী আক্তারকে সোমবার রাতে গ্রেপ্তার করেছে। ধর্ষণের শিকার ওই তরুণী জানায়, গত ৫ বছর যাবৎ তার সঙ্গে মুন্সীগঞ্জ পৌর এলাকার শেখ মো. আলীর ছেলে মাছুম বেপারীর মোবাইল ফোনে প্রেম চলছিল।

এক পর্যায়ে গত ৯ই ডিসেম্বর মাছুম ওই তরুণীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ফতুল্লায় আসতে বলে। সে ফতুল্লায় আসার পর মাছুম তাকে কাশীপুর এলাকায় তার মামার বাড়ি নিয়ে যায়। সেখানে তাকে আটকে রেখে বিয়ে না করেই একাধিকবার ধর্ষণ করা হয়। এভাবে ১২ দিন অতিবাহিত হবার পর গত রোববার ওই তরুণী কৌশলে ওই বাড়ি থেকে পালিয়ে গিয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পরীক্ষা করায় এবং ওই রিপোর্ট নিয়ে এসে সোমবার রাতে ফতুল্লা থানায় মামলা দায়ের করে। মামলার প্রেক্ষিতে পুলিশ সোমবার রাতেই কাশীপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে ধর্ষক মাছুমের মামী বেবী আক্তারকে ধর্ষণে সহায়তার অভিযোগে গ্রেপ্তার করে এবং ওই তরুণীকে আবারও ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ফতুল্লা থানার ওসি জীবন কান্তি সরকার জানান, ধর্ষক মাছুমকে গ্রেপ্তারে মুন্সীগঞ্জে তার বাড়িতে অভিযান চালানো হয়েছে। কিন্তু তাকে পাওয়া যায়নি।

[ad#co-1]

2 Responses

Write a Comment»
  1. Shame……….

  2. bad news everyday