চারটি এলিজি

নূহ-উল-আলম লেনিন
এক.
আমার জন্য কেউ অপেক্ষা করে নেই
ব্যস্ত পৃথিবী ব্যস্ততম সেইসব প্রিয় মুখ
যাদের জন্য আমার অধীর প্রতীক্ষা যুগ নিরবধি
তাদের ভীষণ কাজ। জগৎ সংসার তো কেজো
মানুষের জন্যই।

দুই.
আমি আলোকবর্ষ পেরিয়ে স্বর্গদ্বারে পৌঁছুলাম
হুর ও অপ্সরারা তাদের এলোচুল বিছিয়ে দিল পথে
আমি পা বাড়ালাম। বেহেশতি সানাইয়ের সুর মূর্চ্ছনায়
মহাকাশ থেকে পুষ্প বর্ষিত হলো আমার মাথার ওপরে
আমি স্বর্গের বন্ধ দরোজা খুলতে গিয়ে দেখি
চাবি ফেলে এসেছি পৃথিবীতে।

তিন.
ঈশ্বর বড়ো নামের কাঙাল। শত নামে ডাকলে হন খুশি
অষ্টপ্রহর হোক নাম জপ আর সকল প্রশংসা তার- নান্দীপাঠ
অন্তত দিনে পাঁচবার। ঈশ্বরের প্রতিভূ নেতা ঈশ্বরের বাড়া,
চান নিত্য আনুগত্য, সর্বকাজে স্তুতিবাক্য
এবং অমরত্বের বিলাসিতায় মগ্ন সারা বেলা।

চার.
ঝোপ বুঝে কোপ মেরে কাটিয়ে সারা বেলা
এখন উদ্ধার খোঁজে পেয়ে কাঁচকলা।।

[ad#co-1]