ড. ফখরুদ্দীন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময়কাল নিয়ে বই লিখছেন

ওয়ান ইলেভেন-পরবর্তী দু’বছরের কর্মকাণ্ডের আলোকে বই লিখছেন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রধান উপদেষ্টা ড. ফখরুদ্দীন আহম্মদ। মেরিল্যান্ডে অবসর জীবনে এখন এটিই তার একমাত্র কাজ। এ কাজের মাধ্যমে তিনি বহুল আলোচিত ঐ দু’বছরের একটি চিত্র, ভেতরের অজানা কাহিনী জাতির সামনে উপস্থাপন করতে চান। এজন্য তিনি নিতান্তই আপনজন ব্যতীত কারো সঙ্গে সাক্ষাৎ অথবা আলাপ করতে চান না। তবে ভাষা সৈনিক, মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক স্বদেশ বসুর প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য ‘সংহতি’ নামক একটি সেবামূলক প্রতিষ্ঠান কর্তৃক ৬ ডিসেম্বর আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন ড. ফখরুদ্দীন আহম্মদ। খবর ভার্জিনিয়া থেকে এনার।

৬ ডিসেম্বর এ অনুষ্ঠানটি হয় ভার্জিনিয়া স্টেটের হার্নডন সিটিতে। এ শোক-সমাবেশে ড. ফখরুদ্দীন স্বদেশ বসুর স্মৃতিচারণকালে বলেন, তিনি ছিলেন খাঁটি একজন দেশপ্রেমিক। অন্যায়-অবিচারের সঙ্গে কখনো আপোষ করেননি। তিনি বলেন, স্বদেশ বসু অনন্য মেধাবী অর্থনীতিবিদ ছিলেন। স্বাধীনতার পর পরিকল্পনা কমিশনের সদস্য হিসেবে দেশ পুনর্গঠনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন তিনি। তার মৃত্যুতে জাতি একজন দেশপ্রেমিক সন্তানকে হারালো।

এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিশ্বব্যাংকের কর্মকর্তা ড. আব্দুন নূর, হাসান ইমাম, অধ্যাপক খালিদ হ্সাান, জাহানারা হাসান, ড. জিয়াউদ্দিন, ড. একে আহমেদ, জাহানারা আলী, ড. রইসউদ্দিন, অধ্যাপক বাতেন, হুসনে আরা বাতেন এবং প্রবাসের জনপ্রিয় কলামিস্ট ওয়াহেদ হোসেনী।

[ad#co-1]