টঙ্গিবাড়ী উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি সন্ত্রাসী হামলায় আহত

টঙ্গিবাড়ী উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি মুক্তিযোদ্বা আবু সাঈদ বাচ্চু বেপারী সন্ত্রাসী হামলায় আহত হয়ে এখন মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছেন। তিনি মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ৪ নম্বর কেবিনে কাতরাচ্ছেন। ঘটনার ৪ দিন অতিবাহিত হলেও এ বিষয়ে টঙ্গিবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মামলা নেয়নি বলে অভিযোগ উঠেছে। গুরুতর আহত বাচ্চু বেপারী টঙ্গিবাড়ী উপজেলা মুক্তিযোদ্বা সংসদের সদস্য সচিব।

এছাড়াও তিনি টঙ্গিবাড়ী বাজার বণিক সমিতি ও টঙ্গিবাড়ী আমতলী মসজিদ পঞ্চায়েত কমিটির সভাপতি। গুরুতর আহত বাচ্চু বেপারীর ভাগ্নি মুন্সীগঞ্জ জেলা মহিলা পরিষদের সহ-সভানেত্রী মোর্শেদা বেগম লিপি বলেন, টঙ্গিবাড়ী বাজারের স্থানীয় সন্ত্রাসী সুমন খান, কাউসার শেখ, বিপ্লব, মনির বেপারী, ভবগত মণ্ডল, গৌতম দাস ও কমল দাস গংকে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে বাধা দেয়ায় তারা বাচ্চু বেপারীর ওপর প্তি হয়ে উঠে। গত ৩০ শে নভেম্বর বেলা ১১টার দিকে তার ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান চাঁদ ট্রেডার্স থেকে থানার উদ্দেশে যাচ্ছিলেন। টঙ্গিবাড়ী বাজার সংলগ্ন টানা ব্রিজ অতিক্রম করার সময় সন্ত্রাসীরা তার ওপর হামলা চালায়। এলোপাতাড়ি কুপিয়ে ও পিটিয়ে তাকে গুরুতর আহত করে। এ ব্যাপারে থানায় মামলা দিতে গেলে রহস্যজনক কারণে পুলিশ মামলা নেয়নি।

[ad#co-1]