মুন্সীগঞ্জ আদালতে পাষন্ড বাবার নিজ সন্তান নয় বলেই কন্যাকে হত্যা করি

কাজী দীপু ,মুন্সীগঞ্জ: মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগরে শিশু কন্যা রাত্রি নিজ ঔরসজাত সন্তান নয় এ নিয়ে স্ত্রীর সঙ্গে ঝগড়ার পর ক্ষুব্ধ হয়ে পুকুরে ছুড়ে ফেলে পানিতে চুবিয়ে হত্যা করেছি। খুনের মামলায় গ্রেফতারকৃত বাবা রাজন হোসেন মুন্সীগঞ্জ আদালতে হত্যার কথা স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছে। রোববার বিকেলে মুন্সীগঞ্জের ২ নং আমলী আদালতের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রবিউল আলমের কাছে ১৬৪ ধারায় ঘাতক বাবা এই স্বীকারোক্তি মুলক জবানবন্দি দেয়।

শ্রীনগর থানার ওসি শাখাওয়াত হোসেন বলেন, ঘাতক রাজন ১৬৪ ধারায় জবানবন্দিতে হত্যার কথা স্বীকার করে বলেছে, বিয়ের পর ৭ মাসের মাথায় স্ত্রী গর্ভে রাত্রির জন্ম হয়।

এতে স্বামী রাজন ওই শিশু কন্যা তার ঔরসজাত সন্তান নয় বলে দাবী করলে এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া বাঁেধ। জানা গেছে, ৩ বছর আগে শ্রীনগর উপজেলার মধ্য বাঘরা গ্রামের ইউসুফ মিয়ার মেয়ে রুমার সঙ্গে একই গ্রামের আলিমউদ্দিনের ছেলে রাজনকে গ্রামবাসী জোর করে বিয়ে দেয়।

[ad#co-1]