মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগরে টেন্ডার ছাড়াই প্রতœ নিদর্শন বিক্রি!

কাজী দীপু, মুন্সীগঞ্জ থেকে: শ্রীনগর উপজেলায় ভারতবর্ষের বিখ্যাত জমিদার হরেন্দ্রলাল রায় বাহাদুরের কাঁচারি প্রাসাদটি টেন্ডার ছাড়াই বিক্রি করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রায় দুশ বছরের প্রাচীন এই প্রাসাদটির প্রতœ নিদর্শন হিসেবে গুরুত্ব রয়েছে বলে সচেতনমহল জানিয়েছেন। ইতোমধ্যে ক্রেতা ভবনটি ভেঙেও ফেলেছেন বলে জানা গেছে। লোহার ভিম, দরজা জানালা ও ইট বিক্রি করা হয়েছে। জানা গেছে ভবনটির প্রতœতাত্ত্বিক মূল্য ছাড়াও প্রকৃত মূল্য প্রায় ৫ লক্ষাধিক টাকা। জানা যায়, কয়েক বছর আগে এই অনিন্দ্যসুন্দর প্রতœ নিদর্শনটি রক্ষার জন্য স্থানীয় ভাগ্যকুল হরেন্দ্রলাল উচ্চবিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ লক্ষাধিক টাকা ব্যয় করে।

অভিযোগে জানা গেছে, ১৮৮৭ সালে হরেন্দ্রলাল কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত এই কাঁচারি প্রাসাদটি ১৯০০ সালে পুনঃপ্রতিষ্ঠা করা হয়। বিক্রির আগ পর্যন্ত এটি ছিল অর্পিত সম্পত্তি। ভাগ্যকুল হরেন্দ্রলাল উচ্চবিদ্যালয়ের দক্ষিণে অবস্থিত এ স্থাপনা সম্প্রতি টেন্ডার ছাড়াই মাত্র ৮০ হাজার টাকায় আওয়ামী লীগ কর্মী নাজিম সরদারের কাছে বিক্রি করে দেয়া হয়।

কলকাতা বেঙ্গল মহাজন সভার সভাপতি, মিডফোর্ট হাসপাতালের লাইফ গভর্নর, মুন্সীগঞ্জ হরেন্দ্রলাল পাঠাগারের প্রতিষ্ঠাতা, মুন্সীগঞ্জ-বিক্রমপুরের প্রথম কলেজের প্রতিষ্ঠাতা, দানবীর, জমিদার হরেন্দ্রলাল রায়ের অনন্য কীর্তি ছিল এই কাঁচার প্রাসাদ। এ ব্যাপারে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির চেয়ারম্যান মনির হোসেন বলেন, স্থানীয় সংসদ সদস্য ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে অবগত করেই ভবনটি বিক্রি করা হয়েছে। সম্পাদনা: শাহজাহান কমর