উপন্যাসের শেষ পর্বটি লিখছি – মিলন

milonবাংলাদেশের হাতেগোনা কয়েকজন খ্যাতিমান কথা-সাহিত্যিকের মধ্যে অন্যতম ইমদাদুল হক মিলন। আসন্ন ঈদ ও বইমেলায় এই সাহিত্যিকের একাধিক উপন্যাস ও গল্প প্রকাশিত হবে। সাম্প্রতিক ব্যস্ততা নিয়ে ইমদাদুল হক মিলন মুখোমুখি হয়েছিলেন দৈনিক ইত্তেফাকের। সাক্ষাৎকার নিয়েছেন নাহিদ হোসেন

আপনার ধারাবাহিক উপন্যাস ‘নূরজাহান’ কোন পর্যায়ে আছে?

‘নূরজাহান’ উপন্যাসটি নিয়মিত প্রকাশিত হ”েছ ‘সাপ্তাহিক ২০০০’ পত্রিকায়। আগামী জানুয়ারিতে এটি শেষ হবে। বর্তমানে আমি এ উপন্যাসের শেষ পর্বটি লিখছি।

আসছে ঈদে পাঠকদের কী কী উপহার দি”েছন?

বিভিন্ন দৈনিক ও সাময়িকীর ঈদ সংখ্যায় উপন্যাস ও বড় গল্প প্রকাশিত হবে। ইতোমধ্যে লেখা শুরুও করে দিয়েছি। বাকিগুলোর জন্য প্র¯’তি নি”িছ।

ঈদ মৌসুমে কয়টি উপন্যাস প্রকাশিত হবে?

খুব বেশি না। বড়জোর ২-৩টি। আর ছোট বড় মিলিয়ে গল্প লিখবো কয়েকটি।

ঈদের জন্য নাটক লিখছেন না?

ইতোমধ্যেই তিনটি নাটক লিখে দিয়ে দিয়েছি। নাটকগুলোর নাম হলো ‘অপহরণের পর’, ‘কয়েকটি মজার চরিত্র’ ও ‘কুসুমের ছবি’।

লেখালেখি ছাড়া টিভি অনুষ্ঠান ইত্যাদির ব্যস্ততা কেমন?

চ্যানেল আইয়ের জন্য একটি টক শো করছি। ‘অনেক কথা বলার ছিলো’ নামের এই টকশোটির ছয় পর্ব রেকর্ড হয়ে গেছে। আরো ছয় পর্ব রেকর্ড হলেই প্রচার শুরু হবে। এছাড়া এটিএন বাংলা ও এনটিভির প্রতিষ্ঠা-বার্ষিকীর বিশেষ দুটি অনুষ্ঠান করবো। একটির রেকর্ডিং আগামীকাল আরেকটি এ মাসের শেষের দিকে।