মুন্সীগঞ্জে শ্মশানের পাশে হাসপাতাল নির্মাণের প্রতিবাদে গ্রামবাসীর সমাবেশ পণ্ড

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার শেখরনগর গ্রামে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের শ্মশানের পাশে হাসপাতাল নির্মাণের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে ক্ষুব্ধ গ্রামবাসীর বিক্ষোভ সমাবেশ পণ্ড হয়ে গেছে। স্খানীয় প্রশাসনের নিষেধ থাকায় গ্রামবাসীর ওই প্রতিবাদ কর্মসূচি বাতিল হয়ে যায়। গতকাল বিকেল ৪টার দিকে স্খানীয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাইকিং করে হাসপাতাল নির্মাণের বিরুদ্ধে সভা করতে নিষেধ করে দেয়া হয়। এ সময় শেখর গ্রামের মসজিদ থেকেও মাইকিং করা হয়েছে সমাবেশ না করার জন্য। স্খানীয় এলাকাবাসী এসব জানান। তবে এ প্রসঙ্গে সিরাজদিখান উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা দাউত-উল-ইসলামের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বিষয়টি এড়িয়ে যান। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি জেলা প্রশাসকের সাথে যোগাযোগ করতে বলেন। জেলা প্রশাসক মো: মোশারফ হোসেনকে পাওয়া যায়নি তার বক্তব্য জানার জন্য।
শেখরনগর বাজার সংলগ্ন রাজা শ্রীনাথ রায় বাহাদুরের বাড়িতে শেখরনগর পূর্ণচন্দ্র দাতব্য চিকিৎসা কেন্দ্রটি প্রতিষ্ঠা হয় বাংলা ১৩২২ সালে। তৎকালীন বাংলার লর্ড কারমাইকেল এই দাতব্য চিকিৎসা কেন্দ্রটি প্রতিষ্ঠা করেন। বর্তমানে ওই প্রতিষ্ঠানের ভবনটি জরাজীর্ণ হয়ে পড়ায় নতুন ভবন নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। কিন্তু এলাকাবাসীর অভিযোগ, প্রশাসন গোপনে শেখরনগর গ্রামের ইছামতি নদীর পাড়ে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের শ্মশানের পাশের জায়গা নির্ধারণ করেছে। এতে গ্রামবাসীর সাথে প্রশাসনের দ্বন্দ্ব দেখা দিয়েছে। গতকাল শুক্রবার শ্মশান এলাকায় গ্রামবাসী প্রশাসনের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে সভা আহ্বান করলে সভা শুরুর মাত্র ঘন্টাখানেক আগে মাইকিং করে প্রশাসন ওই সভা করতে নিষেধ করে দেয়। এ ব্যাপারে সিরাজদিখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার সাথে সেলফোনে কথা হলে তিনিও বিষয়টি এড়িয়ে যান।