প্রধানমন্ত্রীর বহরের হেলিকপ্টার ঝড়ের কবলে পড়ে মুন্সীগঞ্জেজরুরি অবতরণ

কাজী দীপু : মুন্সীগঞ্জ থেকে: গতকাল গোপালগঞ্জ থেকে ঢাকায় ফেরার পথে প্রধানমন্ত্রীর হেলিকপ্টারবহর কালবৈশাখীর কবলে পড়ে। তবে প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী কপ্টারটি নিরাপদে ঢাকায় অবতরণ করে। অবশ্য অপর একটি হেলিকপ্টার দুর্ঘটনা এড়াতে মুন্সীগঞ্জ শহরের মাঠপাড়া এলাকার জেলা স্টেডিয়ামে জরুরি অবতরণ করে। প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব আবুল কালাম আজাদ, এসএসএফ’র বিগ্রেডিয়ার খালেদসহ প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা রক্ষায় নিয়োজিত আরো ৮ এসএসএফ সদস্য, এপিএস-১ খায়রুল, এপিএস-২ শেখর, প্রটোকল অফিসার মর্জিনা বেগম ও ক্রুসহ প্রায় ৩০ জন হেলিকপ্টারটিতে ছিলেন। জেলা প্রশাসন সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

মুন্সীগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো. মোশারফ হোসেন জানান, প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী হেলিকপ্টারটি গোপালগঞ্জ থেকে ঢাকার উদ্দেশে রওনা হওয়ার পরপরই আকাশ গোলযোগপূর্ণ হয়ে ওঠে। এরপর মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসনের কাছে বার্তা পাঠানো হয় প্রধানমন্ত্রীর হেলিকপ্টারটি জেলা স্টেডিয়ামে অবতরণ করবে। সেই মোতাবেক সেখানকার হেলিপ্যাডটি প্রস্তুত রাখা হয়। তবে মুষলধারে বৃষ্টির মধ্যেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বহনকারী হেলিকপ্টারটি মুন্সীগঞ্জে অতরণ না করে ঢাকায় চলে যায়।

এদিকে প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী হেলিকপ্টারটি গোপালগঞ্জ থেকে রওনা হওয়ার ১০ মিনিটি পর প্রেস সচিব ও এসএসএফ সদস্যদের নিয়ে বিমান বাহিনীর অপর হেলিকপ্টারটি ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেয়। পথিমধ্যে কালবৈশাখী ঝড়ের কবলে পড়ে ২টা ৫০ মিনিটে এই হেলিকপ্টারটি মুন্সীগঞ্জ স্টেডিয়ামে জরুরি অবতরন করে। পরে হেলিকপ্টারে থাকা প্রেস সচিব আবুল কালাম আজাদসহ অন্য কর্মকর্তারা জেলা প্রশাসনের গাড়িযোগে সড়কপথে ঢাকায় রওনা হন। তারা পৌনে ৪টায় সড়ক পথে ঢাকায় পৌঁছেন বলে মুন্সীগঞ্জের জেলা প্রশাসক এ প্রতিবেদককে জানিয়েছেন। এদিকে কালবৈশাখী ঝড়ের কবলে পড়ে অবতরণ করা হেলিকপ্টারটি বিকেল পৌনে ৫টায় ঢাকার উদ্দেশে রওনা হয়।