গজারিয়ায় সামছু পাগলার আস্তানায় হঠাৎ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন হঠাৎ গতকাল মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চল রায়পাড়া গ্রামের সামছু পাগলার বাড়িতে হাজির হন। তার সাথে একান্তে তার আস্তানায় ৭ মিনিট কথা বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। স্খানীয় সাংবাদিক ও উৎসুক কয়েক শ’ মানুষ আস্তানার বাইরে অনেক দূরে দাঁড়িয়ে ছিলেন। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী কাউকেই কাছে যেতে দেয়নি।
হঠাৎ সামছু পাগলার আস্তানায় আগমন সম্পর্কে সাংবাদিকরা জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কোনো জবাব দেননি। তবে সামছু পাগলা বলেছেন, তিনি দোয়া নিতে এসেছেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: রুহুল আমিন বলেন, মন্ত্রী মহোদয় একান্ত ব্যক্তিগত সফরে এখানে এসেছেন।
সকাল ১০টায় অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন কোনো প্রটোকল ছাড়াই গজারিয়া উপজেলায় পৌঁছলে প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীসহ সর্বত্র তোলপাড় শুরু হয়। তিনি সোজা চলে যান রায়পাড়া গ্রামে সামছু পাগলার বাড়িতে। খবর পেয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর গাড়ির পেছনে পেছনে গজারিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাও ছুটে আসেন। সামছু পাগলার বাড়িতে একান্তে ৭ মিনিট কথা বলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেন। নিয়মিত ক্লিনসেভ করা সামছু পাগলা যে একজন পীর, রায়পাড়া গ্রামের মানুষ আগে তেমন একটা জানত না। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সামছু পাগলার দোয়া নিতে ঢাকা থেকে তার আস্তানায় এসেছেন, এটিই ছিল গতকাল রায়পাড়াসহ আশপাশের কয়েকটি গ্রামের মানুষের মধ্যে একমাত্র আলোচ্য বিষয়। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী চলে যাওয়ার পর উৎসুক লোকজন তার বাড়িতে ভিড় করেন। তবে সামছু পাগলা দিনভর কারো সাথে তেমন কোনো কথা বলেননি।