মুন্সীগঞ্জে চাচার বিরুদ্ধে ভাতিজা ও ভাইয়ের বিরুদ্ধে ভাই চেয়ারম্যান প্রার্থী

কাজী দীপু, মুন্সীগঞ্জ থেকে: মুন্সীগঞ্জের ৬টি উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৪৪ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। বিএনপি, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী ছাড়া সংসদ নির্বাচনে মনোনয়ন বঞ্চিত, দলীয় বিরোধ ও পারিবারিক দ্বন্দ্বে একই পরিবার থেকে একাধিক প্রার্থী ও মুক্তিযোদ্ধারা প্রার্থী হয়েছেন। তবে জেলার ৬টি উপজেলার নির্বাচনে আ’লীগ ঘরানার একাধিক নতুন মুখ প্রার্থী তালিকায় রয়েছেন। আ’লীগ থেকে একক প্রার্থী নির্ধারণ করা হলেও মাঠে রয়েছে বিদ্রোহী প্রার্থী। এদিকে প্রচারে আ’লীগ প্রার্থীরা নির্বাচনি এলাকা সরগরম করে তুললেও বিএনপি প্রার্থীরা নীরব।

সদর উপজেলায় ৯ জনের প্রার্থী তালিকায় চাচা ভাতিজাসহ ৪ জন আ’লীগ ঘরানার। তারা সবাই চেয়ারম্যান প্রার্থী। সংসদ নির্বাচনে মনোনয়ন বঞ্চিত জেলা আ’লীগের সাবেক সহসভাপতি আনিছুজ্জামান আনিছ (দোয়াত কলম) এখানে সর্বাধিক আলোচিত প্রার্থী। সেই সঙ্গে তার খালাতো ভাই ১৪ দলীয় নেতা ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মোহাম্মদ হোসেন বাবুল (চেয়ার) ভাইয়ের বিরুদ্ধে লড়ছেন। আর ২ চাচার বিরুদ্ধে প্রার্থী হয়েছেন জেলা আ’লীগের সভাপতি মোহাম্মদ মহিউদ্দিনের বড় ছেলে ফয়সাল আহমেদ বিপ্লব (দেয়াল ঘড়ি)। এছাড়া মোল্লাকান্দি ইউনিয়ন আ’লীগ সভাপতি শাহ আলম মল্লিক (মাছ) মার্কা নিয়ে নির্বাচন করছেন। অপরদিকে বিএনপির ৩ প্রার্থীর মধ্যে সাবেক সাংসদের ভাই আব্দুল মতিনের নির্বাচনি প্রচারণা নেই। শহর বিএনপির সভাপতি শাহজাহান সিকদার শেষ মুহূর্তে ছাতা মার্কা নিয়ে প্রচারে নেমেছেন। তবে বিএনপির একক প্রার্থী হতে যাচ্ছেন অ্যাড. সালাউদ্দিন খান স্বপন।

টঙ্গীবাড়ী উপজেলায় ৯ চেয়ারম্যান প্রার্থীর মধ্যে ৫ জনই আওয়ামী লীগের। লৌহজং উপজেলায় ৩ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী। উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফকির মো. আব্দুল হামিদ (ছাতা) ও সদ্য আ’লীগে যোগদানকারী মো. ওসমান গনি তালুকদার (চেয়ার মার্কা) নিয়ে নির্বাচন করছেন। এখানে আনারস মার্কা নিয়ে নির্বাচন করছেন বিকল্পধারা বাংলাদেশের উপজেলা আহবায়ক মো. শওকত আলী বেপারী।

সিরাজদিখান উপজেলায় ৫ জন চেয়াম্যান প্রার্থী। তবে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী উপজেলা আ’লীগ সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ (আনারস) ও বিএনপি সভাপতি আব্দুল কুদ্দুস ধীরেন (মাছ) দুই দলের একক প্রার্থী। এছাড়া সালাম সরকার (চেয়ার) ও শাহজাহান (ছাতা) প্রতীক নিয়ে জাতীয় পার্টি থেকে নির্বাচন করছেন। শ্রীনগর উপজেলায় ৯ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী হলেও কেন্দ্রীয় মুক্তিযোদ্ধা দলের সহসভাপতি কাজী আজিজুল হক লেবু (দেয়াল ঘড়ি) ও শ্রীনগর উপজেলা আ’লীগ সহসভাপতি বেলায়েত হোসেন ঢালী (আনারস) বিএনপি ও আওয়ামী লীগের একক প্রার্থী। গজারিয়া উপজেলায় ৯ চেয়ারম্যান প্রার্থীর মধ্যে ৭ জনই আ’লীগের। এতে নেতাকর্মীরা বিভক্ত হয়ে পড়েছে। সম্পাদনা: শাহজাহান কমর