একেবারেই হস্তক্ষেপমুক্ত নির্বাচন কামনা করি : অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী

অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী বলেন_ নির্বাচন বলতে বুঝি অবাধ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্যতার নির্বাচন৷ যে নির্বাচনে এই তিনটি গুণ থাকবে, সেই নির্বাচনই তিনি চান৷ অধ্যাপক ইসলাম বলেন, সরকার যেহেতু নিজেদের নিরপেক্ষ মনে করে, নির্বাচন কমিশনও নিজেদের নিরপেক্ষ দাবি করে; কাজেই একেবারেই হস্তক্ষেপমুক্ত নির্বাচন কামনা করি৷ এখানে প্রমাণ থাকতে হবে যে জনগণ ভোট দিতে পেরেছে, কারচুপি হয়নি এবং দেশীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে গ্রহণযোগ্য হতে হবে৷ তিনি বলেন, জরুরি অবস্থায় নির্বাচন করা কঠিন হয়ে পড়ে৷ অবাধ করতে হলে প্রাথর্ীদের গণসংযোগ করতে দিতে হবে৷ একদিকে তারা গ্রেফতার হবে না_ এটা যেমন দরকার অন্যদিকে ভেতরে ভীতিও কাজ করবে না, সে আস্থার পরিবেশ দরকার৷ নির্বাচনের ইতিবাচক আবহ সৃষ্টি করতে হবে৷ এজন্য একটি স্বাভাবিক ও গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা দরকার৷ কেননা, জরুরি অবস্থায় গ্রেফতার হতে পারে যে কেউ৷ এতে প্রাথর্ী-ভোটার উভয়ে চাপে থাকতে পারে৷ আসলে জরুরি অবস্থা শিথিলের ব্যাপার নয়৷ উলি্লখিত বিষয়টি মানসিক ব্যাপার৷ আর এটা প্রতিশ্রুতি দিয়ে হয় না৷ বাংলাদেশে নির্বাচন একটি উত্‍সবের মতো৷ তাই মানুষ যাতে ভোট কেন্দ্রে আসতে পারে, সেভাবে ইতিবাচক আবহ তৈরি করতে হবে৷